রাজনীতি

রাজকোষ আজ কোন দানবদের খপ্পড়ে?

image
Sat, March 19
05:34 2016

ডক্টর তুহিন মালিক:

ණ☛ •রাজকোষ আজ কোন দানবদের খপ্পড়ে? •তারা কারা, প্রধানমন্ত্রীর চেয়েও বেশী ক্ষমতাবান? •কার চাপে পরে অর্থমন্ত্রী এখন নিজের বক্তব্যকেই অগ্রহনযোগ্য বলতে বাধ্য হচ্ছেন ?

ණ☛ গতকাল প্রথম আলোতে দেয়া অর্থমন্ত্রীর সাক্ষাৎকারটি প্রমান করলো দেশের ব্যাংক ও আর্থিক খাতে নিয়ন্ত্রণ সম্পুর্ন অন্য কারো হাতে চলে গেছে।

(১) অর্থমন্ত্রী বলেন, "আতিউর পদত্যাগে বাধ্য হয়েছেন।" • তাহলে, কে বা কারা তাকে পদত্যাগে বাধ্য করলো? •আমরা তো দেখেছি প্রধানমন্ত্রী তার জন্য কান্না করলেন! •তাহলে কে আছে আরো ক্ষমতাবান, যারা তাকে পদত্যাগে বাধ্য করলো?

(২) অর্থমন্ত্রী বলেন, "রিজার্ভ থেকে অর্থ চুরির ঘটনায় বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা অবশ্যই জড়িত। তাঁদের যোগসাজশ ছাড়া এ কাণ্ড হতে পারত না। .. অবশ্যই .. শতভাগ জড়িত। স্থানীয়দের ছাড়া এটা হতেই পারে না। ছয়জন লোকের হাতের ছাপ ও বায়োমেট্রিকস ফেডারেল রিজার্ভে আছে। নিয়ম হলো, প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয়—এভাবে ষষ্ঠ ব্যক্তি পর্যন্ত নির্দিষ্ট প্লেটে হাত রাখার পর লেনদেনের আদেশ কার্যকর হবে।" • এখন প্রশ্ন হচ্ছে এই ছয়টা হাত কাদের? •এই হাতগুলো কতটা প্রসারিত? •এই কমর্কতারা কারা? •তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া তো দুরের কথা, তাদের ব্যাপারে ইঙ্গিত দিতে গিয়ে কেন খোদ অথর্মন্ত্রীকেই এভাবে নাকে খত দিতে হলো?

(৩) অর্থমন্ত্রী বলেন, "আতিউর রহমান ... একটুও লজ্জিত হননি। ...কেন্দ্রীয় ব্যাংকে তাঁর অবদান প্রায় শূন্য (অলমোস্ট জিরো)। তিনি খালি পৃথিবী ঘুরে বেড়িয়েছেন আর লোকজনকে অনুরোধ করেছেন বক্তৃতা দেওয়ার জন্য তাঁকে সুযোগ দিতে ও দাওয়াত দিতে।" • এটা কি অথর্মন্ত্রী এতদিন পর দেখলেন? এটা দেখার দায়িত্ব তো অথর্মন্ত্রীরই ছিল। এতদিন ধরে কেন তিনি চুপ ছিলেন? •অধিন্যাস্ত এবং নিয়োগদাতা হিসাবে আপনারা এর দায়ভার কোনভাবেই এড়াতে পারেন কি? •তারা যখন কোন কাজই করতেন না তাহলে রাষ্ট্রের টাকায় এতদিন ধরে তাদের পোষা হলো কেন?

(৪) অর্থমন্ত্রী বলেন, "বেসিক ব্যাংক পুরোনো বিষয়। ...বাংলাদেশ ব্যাংকই সব ধামাচাপা দিয়ে দিল।.... বেসিক ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল হাই বাচ্চুর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। যাই হোক। রাজনৈতিক ব্যাপার-স্যাপার সব আলাপ করা যায় না।" •বাচ্চু প্রধানমন্ত্রীর আত্মীয় হবার কারনেই কি সব ধামাচাপা দেয়া হয়েছে? •বেসিক ব্যাংকের দুনীর্তি 'রাজনৈতিক ব্যাপার-স্যাপার' ছিল, যা এতদিন পর স্বয়ং অথর্মন্ত্রী নিজেই স্বীকার করেই নিলেন।

(৫) অর্থমন্ত্রী বলেন, "আতিউরের অবদান প্রায় শূন্য। রিজার্ভের কৃতিত্ব তাঁর নয়, প্রবাসী শ্রমিকদের।" •অর্থমন্ত্রী স্বীকার করেই নিলেন যে, সরকার এতদিন ধরে রিজার্ভের কৃতিত্ব নিয়ে যেসব গলাবাজি করে আসছে, তার পুরো কৃতিত্ব শুধুই প্রবাসী শ্রমিকদের।

(৬) অর্থমন্ত্রী বলেন, "এনবিআরের চেয়ারম্যান কোনো কাজ-কাম করেন না। খালি বক্তৃতা দেন। তাঁরও পুরো আচরণ হচ্ছে জনসংযোগ করা। করুক, আপত্তি নেই। কিন্তু নিজের কাজটা তো করতে হবে। এক বছর হয়ে গেছে, অথচ এনবিআরের চেয়ারম্যান জানেনই না যে এনবিআর কীভাবে চলে।... তিনি এত বক্তৃতা দেন যে তাঁকে আসলে তথ্যসচিব বানিয়ে দেওয়া উচিত। ... তিনি রাজনীতিবিদদের সঙ্গেও যোগাযোগ রক্ষা করে চলেন।" •দেশের অথর্মন্ত্রীর পদে থেকে এনবিআরের চেয়ারম্যান সম্পর্কে কোন ধরনের ভাষা ব্যবহার করতে হয়, সেটাই তিনি জানেন না। •অথচ তিনি দাবী করেন, 'এই মুহূর্তে আমার চেয়ে বিশেষজ্ঞ দ্বিতীয় ব্যক্তি পৃথিবীতে নেই।'

(৭) প্রধানমন্ত্রীর চেয়েও ক্ষমতাবানদের চাপে পরেই ২৪ ঘন্টার মধ্যে অর্থমন্ত্রী নিজের বক্তব্যকেই অগ্রহনযোগ্য দাবী করে জানালেন যে, "সাক্ষাৎকার গ্রহণের সময় তিনি ‘অফ দ্য রেকর্ড’ কথা বলেছেন এবং সাক্ষাৎকার প্রকাশের আগে তাঁকে দিয়ে খসড়া অনুমোদন করানো হয়নি।" কিন্তু প্রথম আলোর রেকর্ড মতে, "বিগত ২১ মাসে অর্থমন্ত্রীর পাঁচটি সাক্ষাৎকার প্রথম আলোতে ছাপা হয়েছে। সেসব সাক্ষাৎকার প্রকাশের আগে কখনই তাঁকে খসড়া দেখিয়ে নেওয়ার প্রসঙ্গ ওঠেনি। এবং গতকালের সাক্ষাৎকার নেওয়ার পরও খসড়া দেখানোর বিষয়টি আলোচিত হয়নি। এবং অর্থমন্ত্রী যেসব বিষয় প্রকাশ করতে নিষেধ করেছেন, সেসব বিষয় প্রথম আলো প্রকাশ করেনি।"

(৮) •আসলে দেশের পুরো অথর্নীতি, ব্যাংক, আথির্ক প্রতিষ্ঠান - কোনটাই আর আমাদের নিয়ন্ত্রণে নেই। •রিজার্ভে আদৌ কোন টাকা অবশিষ্ট আছে কি না তাও হলফ করে বলার কেউ নেই। •পরাধীনতার শৃঙ্খল পড়েছে বহু আগেই। •রাজকোষ আজ কোন দানবদের খপ্পড়ে?

লেখক: সুপ্রিম কোর্টের আইনজ্ঞ ও সংবিধান বিশেষজ্ঞ।

e-mail : [email protected]

লেখাটি ১৭৭১ বার পড়া হয়েছে
নিউজ অর্গান টোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


Share


Related Articles

Comments

ফেসবুক/টুইটার থেকে সরাসরি প্রকাশিত মন্তব্য পাঠকের নিজস্ব ও ব্যক্তিগত মতামতের প্রতিফলন, এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

মোট ভিসিটর সংখ্যা
৭৮৬৮০৩০৯

অনলাইন ভোট

image
মাদক বিরোধী অভিযানের নামে অব্যাহত ক্রসফায়ার সমর্থন করেন কি?

আপনার মতামত
হ্যাঁ
না
ভোট দিয়েছেন ১১২ জন

আজকের উক্তি

নির্বাচনকালীন সরকার কিংবা সহায়ক সরকার বিষয়টি রাজনৈতিক, এ বিষয়ে আমার কোনো বক্তব্য নেই: প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নুরুল হুদা
Changer.com - Instant Exchanger