বিনোদন

কঙ্গনার বিরুদ্ধে অভিযোগ পাহাড় সমান

image
Sun, September 10
04:47 2017

নিউজ অর্গান টোয়েন্টিফোর.কম:

ණ☛ মুম্বই রিজিওনাল নারী কংগ্রেসের জেনারেল সেক্রেটারি গুরপ্রীত কৌর চড্ডা আইনি নোটিস পাঠাতে পারেন কঙ্গনা রানাউতকে। কারণ, নায়িকার দায়িত্বজ্ঞানহীন সাক্ষাৎকার। মহারাষ্ট্রের নারী কমিশনের চেয়ারপার্সন বলে কঙ্গনা যে ‘গুরমিত চড্ডা’র রেফারেন্স দিয়েছিলেন, তিনি আসলে গুরপ্রীত। তিনিই এখন আইনি নোটিস পাঠানোর কথা ভাবছেন কঙ্গনাকে।

ණ☛অন্তত আমার নামটা ঠিক করে বলতে পারতেন কঙ্গনা! আর হৃতিক-কঙ্গনার লড়াইয়ের মাঝে বিশ্রীভাবে আমাকে জড়ানো হয়েছে। এর জন্য কঙ্গনাকে নোটিস পাঠানোর কথা ভাবছি আমি, বলেছেন গুরপ্রীত। কঙ্গনার বক্তব্য ছিল, মহিলা কমিশনের তরফে তার অভিযোগ নিতে চাওয়া হয়নি কারণ গুরপ্রীত নাকি রোশনদের ঘনিষ্ঠ। এদিকে গুরপ্রীতের বক্তব্য, তিনি কঙ্গনা এবং তার বোন রঙ্গোলিকে বলেছিলেন, পুরো ব্যাপারটা নিয়ে অফিশিয়ালি এগোতে।

ණ☛অন্যদিকে, হৃতিকের বাবা রাকেশ রোশন গুরপ্রীতকে বলেন, কঙ্গনা ক্ষমা চাইলে তবেই তারা ব্যাপারটা নিয়ে কথা বলতে রাজি। এর পরেই গুরপ্রীতের সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ কওে দেন রঙ্গোলি। কঙ্গনা রানাউতের সাক্ষাৎকারে হৃতিক রোশনের বিরুদ্ধে বিষোদ্গার নিয়ে তুমুল হইচইয়ের মাঝে ফারহা খান, সোনা মহাপাত্রের মতো অনেকেই কঙ্গনার বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন। ফারহা বলেছেন, নারী হওয়ার সুযোগ নিয়ে কঙ্গনা বারংবার যে আচরণ করছেন, তা নিন্দনীয়। আবার গায়িকা সোনা মহাপাত্র কঙ্গনার বিরুদ্ধে মুখ খোলায়, তাকে নারীজাতির কলঙ্ক বলে অপমান করেছেন রঙ্গোলি। সব মিলিয়ে কঙ্গনার বিরুদ্ধে অভিযোগ পাহাড় সমান। বলিউডের অনেকেই তার বিরুদ্ধে অভিযোগ আনায় বেশ বিপাকেই পড়েছেন অভিনেত্রী।

লেখাটি ১১৫ বার পড়া হয়েছে
নিউজ অর্গান টোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


Share


Related Articles

Comments

ফেসবুক/টুইটার থেকে সরাসরি প্রকাশিত মন্তব্য পাঠকের নিজস্ব ও ব্যক্তিগত মতামতের প্রতিফলন, এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

মোট ভিসিটর সংখ্যা
৬২৩৪৫৯৯৯

অনলাইন ভোট

image
রোডম্যাপহীন নির্বাচনের দিকে এগোচ্ছে দেশ- মাহমুদুর রহমান মান্নার এ বক্তব্য যথার্থ বলে মনে করেন কি?

আপনার মতামত
হ্যাঁ
না
ভোট দিয়েছেন ৩৪ জন

আজকের উক্তি

নির্বাচনকালীন সরকার কিংবা সহায়ক সরকার বিষয়টি রাজনৈতিক, এ বিষয়ে আমার কোনো বক্তব্য নেই: প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নুরুল হুদা