রাজনীতি

৬০০ সৈন্য হারিয়ে প্রেসিডেন্ট থান শুয়ে বলেছিল, বাংলাদেশের সঙ্গে যুদ্ধ চাই না: সাবেক বিডিআর প্রধান, ভিডিও সহ

image
Thu, September 14
03:54 2017

নিউজ অর্গান টোয়েন্টিফোর.কম:

ණ☛ 'রোহিঙ্গা সমস্যা- সমাধান কোথায়!' শিরোনামে রুবায়েত ফেরদৌসের উপস্থাপনায় 'জনতন্ত্র-গণতন্ত্র' টকশোতে গত ১০ই সেপ্টেম্বর গিয়ে সাবেক বিডিআর প্রধান মেজর জেনারেল (অবঃ) আ ল ম ফজলুর রহমান বলেছেন,

আমি ব্যক্তিগত ভাবে মনে করি দুই লক্ষ রোহিঙ্গা ফোর্স তৈরি করে রাখাইন স্বাধীন করে দেয়া এটা যৌক্তিক। কারণটা হল আমরা ডিপ্লোম্যাটিক চেষ্টা করলাম, সারা পৃথিবীকে আমাদের সাথে নেয়ার চেষ্টা করলাম। কিন্তু শেষ পর্যন্ত যখন কিছুই হলনা, রোহিঙ্গারা ফিরে যেতে পারলো না। আপনি দেখেন, সীমান্তে মাইন পুতা হয়েছে। কেন? এরা যেন ফিরে যেতে না পারে। ফিরে গেলেই মারা যাবে। তো এই যে যখন অবস্থা, সেই ক্ষেত্রে সমস্যাটা হয়ে যাবে বাংলাদেশের তখন।

ණ☛ তিনি বলেন, আমি বলছি যখন সবকিছু ফেইল করে যাবে তখন এই রোহিঙ্গাদেরকে প্রশিক্ষণ দিয়ে, আমি দুই লক্ষ বলেছি, এটাতো কম বলেছি, আরো বেশী প্রশিক্ষণ দিয়ে, এদেরকে সব রকমের সহায়তা দিয়ে, অস্ত্র দিয়ে, আমাদের ফোর্স দিয়ে, আরাকান দখল করে নিতে হবে। স্বাধীন করতে হবে। এবং সেটা বাংলাদেশের অংশ করে নিতে হবে।

ණ☛ এরকম অবস্থা আমরা পারবো কি না বা সক্ষমতা আছে কিনা এর উত্তরে তিনি বলেন, অবশ্যই করতে পারবো। কারণ নাফ যুদ্ধে তখন আমি ছিলাম, আমরা মাত্র ২৫০০ সৈন্য ছিলাম আর তাদের ছিল দুই ডিভিশন সৈন্য। তাদেরকে আমরা পরাজিত করলাম। এবং তাদের ৬০০ সৈন্য ওখানে মারা গেল। ওই সময় তাদের প্রেসিডেন্ট ছিল থান শুয়ে। সে ডিপ্লমেটদের তখন ইয়াঙ্গুনে ডেকে বলেছিল, আমরা বাংলাদেশের সঙ্গে যুদ্ধ চাই না। এবং তারা হাতে লিখা ডকুমেন্ট মংডুতে আমাদের সঙ্গে করেছিল।

লেখাটি ৩৪৩৬৮ বার পড়া হয়েছে
নিউজ অর্গান টোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Video




Share


Related Articles

Comments

ফেসবুক/টুইটার থেকে সরাসরি প্রকাশিত মন্তব্য পাঠকের নিজস্ব ও ব্যক্তিগত মতামতের প্রতিফলন, এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

মোট ভিসিটর সংখ্যা
৭১৬১৯২০৪

অনলাইন ভোট

image
ধর্ষণ প্রবণতা বেড়ে যাওয়ায় আপনি কি মনে করেন ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড হওয়া উচিত?

আপনার মতামত
হ্যাঁ
না
ভোট দিয়েছেন ৬৬ জন

আজকের উক্তি

নির্বাচনকালীন সরকার কিংবা সহায়ক সরকার বিষয়টি রাজনৈতিক, এ বিষয়ে আমার কোনো বক্তব্য নেই: প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নুরুল হুদা