রাজনীতি

হাজীগঞ্জে যৌতুকলোভী স্বামীর মানসিক চাপে গৃহবধূর আত্মহত্যা

image
Sat, November 11
10:46 2017

মঞ্জুর আলম, চাঁদপুর (হাজীগঞ্জ) প্রতিনিধি:

ණ☛ যৌতুকলোভী স্বামীর মানসিক চাপে হাজীগঞ্জ পৌরসভার আরাখাল বেপারী বাড়ীর দিনমুজুর আবুল খায়েরের মেয়ে নাছরিন আক্তার (২৫) গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। শুক্রবার সকালে গৃহবধুর নিজ বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে । ওই দিন ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চাঁদপুর প্রেরণ করে।

ණ☛ গৃহবধুর পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত ৬ মাস পূর্বে নাছরিন আক্তারকে শাহরাস্তি উপজেলার আদর্শ ইছাপুরা গ্রামের তাজুল ইসলামের ছেলে ইকরামুল কবির মহন (৩১) এর কাছে বিয়ে দেয়। বিয়ের সময় প্রাপ্য যৌতুক হিসেবে দেয়া অর্থ পেয়ে লোভে পড়ে মহন। বিয়ের পর থেকে তার সাথে খারাপ ব্যবহার এবং আরও টাকার জন্য চাপ দিলে কয়েকবার ৪/৫ হাজার টাকা করে স্বামীর কাছে দেয় নাছরিন। কিন্তু গত দুই দিন পূর্বে বিদেশ যাওয়ার নাম করে নাছরিনকে জোর করে তার বাপের বাড়ীতে ৫০ হাজার টাকা নিয়ে আসার জন্য পাঠায়। টাকা নিয়ে না আসলে বাড়ীতে কোন যায়গা হবে না বলে জানিয়ে দেয় তার স্বামী মহন। বাবার কাছে টাকা চেয়ে না পেয়ে আতœহত্যার পথ বেছে নিয়েছে নাছরিন।

ණ☛ মেয়ের বাবা আবুল খায়ের জানান, ‘ছয় মাস পূর্বে বিয়ে দিয়ে কয়েক লাখ টাকা দিয়েও তাদের মন ভরেনি। আমার মেয়ের মৃত্যুর জন্য মেয়ের জামাই দায়ী। আমি এর সুষ্ঠু বিচার চাই।

ණ☛ এ বিষয়ে হাজীগঞ্জ থানার এস আই মাঈনুদ্দিন বলেন, ‘ঘটনাস্থল থেকে নাছরিনের লাশ উদ্ধার করে থানায় এনেছি। এ ঘটনায় মেয়ের বাবা আবুল খায়ের বাদী হয়ে অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করেছেন।’

লেখাটি ৭৩ বার পড়া হয়েছে
নিউজ অর্গান টোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


Share


Related Articles

Comments

ফেসবুক/টুইটার থেকে সরাসরি প্রকাশিত মন্তব্য পাঠকের নিজস্ব ও ব্যক্তিগত মতামতের প্রতিফলন, এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

মোট ভিসিটর সংখ্যা
৫৯১০৮২৪৯

অনলাইন ভোট

image
জনগণের নয়, বিচারকদের প্রজাতন্ত্রে বাস করছি, সাবেক প্রধান বিচারপতি খায়রুল হকের এ বক্তব্যের সাথে আপনি কি একমত?

আপনার মতামত
হ্যাঁ
না
ভোট দিয়েছেন ৬২৭ জন

আজকের উক্তি

আট বছরে আট মিনিটের জন্যও রাজপথে উত্তাপ না ছড়ানোর ব্যর্থতায় বিএনপির টপ-টু-বটম নেতাদের পদত্যাগ করা উচিত: ওবায়দুল কাদের