রাজনীতি

খালেদা জানেন মামলায় তার দণ্ড হয়ে যেতে পারে: কাদের

image
Mon, November 13
04:38 2017

নিউজ অর্গান টোয়েন্টিফোর.কম:

ණ☛ বিএনপির জনসভায় দেয়া খালেদা জিয়ার বক্তব্যকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি অন্ধ আক্রোশের বহিঃপ্রকাশ বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। গতকাল সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা বলেন। খালেদা জিয়ার বক্তব্যের জবাব দিতেই এ সংবাদ সম্মেলন করেন ওবায়দুল কাদের। নির্দলীয় সরকারের অধীনে খালেদা জিয়ার নির্বাচন দাবির বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচন হবে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) অধীনে, সারা পৃথিবীর অন্য দেশগুলোতে যেভাবে হয় সেভাবে। সে সময় যে সরকার থাকবে, তারা ইসিকে স্বাধীনভাবে দায়িত্ব পালন করতে সহায়তা দেবে।

ණ☛ খালেদা জিয়ার বক্তব্যের বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, জুলুম আওয়ামী লীগ করেনি, জুলুম করেছে বিএনপি। এটা দেশের জনগণ জানে। ২১ হাজার আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীর রক্তের দাগ খালেদা জিয়ার হাতে। জুলুম তিনি করেছেন, অথচ তিনি আজও জাতির কাছে ক্ষমা চাননি।

ණ☛ ২০১৪ সালের ৫ই জানুয়ারির নির্বাচনের আগে ও পরে বিএনপির আন্দোলন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, খালেদা জিয়া জ্বালাও-পোড়াও রাজনীতি করেছেন, পুড়িয়ে মানুষ মেরেছেন। তার কৃতকর্মের জন্য তাকেই জাতির কাছে ক্ষমা চাইতে হবে। খালেদা জিয়া এখন ক্ষমার নাটক করছেন মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন, তিনি জানেন, তিনি যে মামলায় জড়িয়ে পড়েছেন, তা আওয়ামী লীগ দেয়নি। তারই তৈরি করা লোকজন (১/১১ সরকার) মামলা দিয়েছে। খালেদা জিয়া জানেন, হয়তো এসব মামলায় তার দণ্ড হয়ে যেতে পারে। এজন্য তিনি ক্ষমার নাটক সাজিয়েছেন।

ණ☛ সরকারের লোক বিদেশে গিয়ে প্রধান বিচারপতিকে পদত্যাগে বাধ্য করেছে-খালেদা জিয়ার এ দাবি নাকচ করে দিয়ে কাদের বলেন, বিদেশে গিয়ে বাংলাদেশের কেউ প্রধান বিচারপতির মতো একজনকে পদত্যাগ করাবে, এটা মনে করা হাস্যকর। নির্বাচনে ম্যাজিস্ট্রেসি ক্ষমতাসহ সেনাবাহিনী মোতায়েন করতে খালেদার দাবি প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী লীগও নির্বাচনে সেনাবাহিনী চায়। তবে সেটা আইন অনুযায়ী।

ব্রিফিংয়ে দলের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, এনামুল হক শামীম, দপ্তর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, কেন্দ্রীয় সদস্য এসএম কামাল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ණ☛ এর আগে দুপুরে রাজধানীর একটি রেস্তরাঁয় জাতীয় সড়ক নিরাপত্তা কাউন্সিলের ২৫তম সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপির সমাবেশে আসার পথে বাধা দেয়ার দাবি ভিত্তিহীন। অতীতেও তারা এমন নালিশ করেছে। পরে তদন্ত করে কোনো ভিত্তি পাওয়া যায়নি।

ණ☛ তিনি বলেন, বিএনপির এ ধরনের অভিযোগ খতিয়ে দেখতে হবে। খতিয়ে দেখতে হবে বিএনপির সমাবেশে সরকার বাধা দিচ্ছে না বিএনপি নিজেই নিজেদের বাধা দিচ্ছে? কারণ তারা তো নিজেরাই নিজেদের বাধা দেয়। এ বিষয়ে তিনি বলেন, অতীতে আমরা যখন বিএনপির এমন অভিযোগের খোঁজখবর নিয়েছি, তখন দেখেছি এসব অভিযোগের বাস্তব কোনো ভিত্তি নেই। আসলে কথায় কথায় নালিশ করা তাদের পুরনো অভ্যাস। এ জন্যই এখন বিএনপি একটি নালিশ পার্টিতে পরিণত হয়েছে।

লেখাটি ১০২১ বার পড়া হয়েছে
নিউজ অর্গান টোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


Share


Related Articles

Comments

ফেসবুক/টুইটার থেকে সরাসরি প্রকাশিত মন্তব্য পাঠকের নিজস্ব ও ব্যক্তিগত মতামতের প্রতিফলন, এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

মোট ভিসিটর সংখ্যা
৫৯১০৯০২৯

অনলাইন ভোট

image
জনগণের নয়, বিচারকদের প্রজাতন্ত্রে বাস করছি, সাবেক প্রধান বিচারপতি খায়রুল হকের এ বক্তব্যের সাথে আপনি কি একমত?

আপনার মতামত
হ্যাঁ
না
ভোট দিয়েছেন ৬২৭ জন

আজকের উক্তি

আট বছরে আট মিনিটের জন্যও রাজপথে উত্তাপ না ছড়ানোর ব্যর্থতায় বিএনপির টপ-টু-বটম নেতাদের পদত্যাগ করা উচিত: ওবায়দুল কাদের