আন্তর্জাতিক

জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে রেড কর্নার জারির আর্জি খারিজ ইন্টারপোলের

image
Sun, December 17
11:35 2017

নিউজ অর্গান টোয়েন্টিফোর.কম:

ණ☛ ধর্মবিষয়ক বক্তা জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে রেড কর্নার জারির আর্জি খারিজ করে দিয়েছে ইন্টারপোল। তার সঙ্গে সন্ত্রাসবাদের কোনো সংশ্লিষ্টতার প্রমাণ দিতে পারেনি ভারতের তদন্তকারী সংস্থাগুলো। ভারতীয় গণমাধ্যম জানায়, জাকির নায়েকের মুখপাত্র এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, ইন্টারপোল জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে রেড কর্নার নোটিশ বাতিল করে দিয়েছে। সারা বিশ্বের ইন্টারপোলের সব দপ্তর থেকে জাকির নায়েক সম্পর্কে তথ্য মুছে ফেলতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। ২০১৬ সালে ঢাকার গুলশানে হামলাকারী জঙ্গিদের কয়েক জন জাকির নায়েকের প্রচারে প্রভাবিত হয়েছিল বলে অভিযোগ ওঠে। তার পরেই দেশ ছাড়েন জাকির। আপাতত সে মালয়েশিয়ায় আশ্রয় পেয়েছে। ২০১৬ সালের নভেম্বর মাসে ইউএপিএ ও ফৌজদারি দ-বিধির নানা ধারায় নায়েকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে এনআইএ।

ණ☛ তার স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ইসলামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশনকেও নিষিদ্ধ করা হয়। জাকিরের নিয়ন্ত্রণে থাকা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অ্যাকাউন্টও ফ্রিজ করা হয়। ভারত, বাংলাদেশ, কানাডা, ব্রিটেনে নিষিদ্ধ হয়েছে জাকিরের টেলিভিশন চ্যানেল ‘পিস টিভি’। এনআইএ-র অভিযোগ অনুযায়ী, জাকির বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মধ্যে বিভেদে উস্কানি দেন। ভারতে জাকির ও তার সংগঠনের ১৯টি স্থাবর সম্পত্তির খোঁজ পেয়েছেন এনআইএ-র গোয়েন্দারা। সেগুলোর মোট মূল্য ১০৪ কোটি টাকা। এই সম্পত্তি কেনার টাকা কোন পথে এসেছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। পরে চার্জশিটও দেয়া হয়েছে জাকিরকে।

ණ☛ ২০১৭ সালে জাকিরের বিরুদ্ধে রেড কর্নার নোটিস জারির আর্জি জানায় ভারত। তার বিরুদ্ধে ইন্টারপোলে চিঠি লিখেছিলেন জাকিরের আইনজীবী ও ব্রিটিশ আইনজীবী সংস্থা কর্কার বিনিং-এর পিটার বিনিং। গতকাল ইন্টারপোল কমিশনে তা নিয়ে শুনানি হয়। ইন্টারপোল জানিয়েছে, জাকিরের জঙ্গি কার্যকলাপে যুক্ত থাকার প্রমাণ ভারত দিতে পারেনি। শুধু তাই নয়, ভারত সরকার এই আর্জির ক্ষেত্রে আইনি প্রক্রিয়াও সঠিক ভাবে অনুসরণ করেনি। জাকিরের বিরুদ্ধে আর্জিতে ‘রাজনৈতিক’ ও ‘ধর্মীয়’ বৈষম্যের গন্ধ পেয়েছে ইন্টারপোল কমিশন। এ ক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক স্বার্থও তেমন নেই বলেই মত তাদের। সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

লেখাটি ২৮২ বার পড়া হয়েছে
নিউজ অর্গান টোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


Share


Related Articles

Comments

ফেসবুক/টুইটার থেকে সরাসরি প্রকাশিত মন্তব্য পাঠকের নিজস্ব ও ব্যক্তিগত মতামতের প্রতিফলন, এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

মোট ভিসিটর সংখ্যা
৬৯৪০৬৭০৪

অনলাইন ভোট

image
ধর্ষণ প্রবণতা বেড়ে যাওয়ায় আপনি কি মনে করেন ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড হওয়া উচিত?

আপনার মতামত
হ্যাঁ
না
ভোট দিয়েছেন ২৭ জন

আজকের উক্তি

নির্বাচনকালীন সরকার কিংবা সহায়ক সরকার বিষয়টি রাজনৈতিক, এ বিষয়ে আমার কোনো বক্তব্য নেই: প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নুরুল হুদা