রাজনীতি

৮ দিবস বাধ্যতামূলক পালনের নির্দেশনা চেয়ে করা রিট সরাসরি হাইকোর্টে খারিজ

image
Mon, January 8
12:59 2018

নিউজ অর্গান টোয়েন্টিফোর.কম:

ණ☛ মুক্তিযুদ্ধ, স্বাধীনতা, বঙ্গবন্ধু, জাতীয় চার নেতা ও শহীদ বুদ্ধিজীবী কেন্দ্রিক আটটি বিশেষ দিবস রাজনৈতিক দলসহ সব নাগরিকের বাধ্যতামূলক পালনের নির্দেশনা চেয়ে করা রিট আবেদনটি সরাসরি খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট।

ණ☛ বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে আজ সোমবার এ আদেশ দেন। আদালত বলেছেন, ‘এটি আমাদের ডোমেইন (অধিক্ষেত্রের বিষয়) নয়। আবেদনটি খারিজ করা হলো।’

ණ☛ ৪ জানুয়ারি আটটি বিশেষ দিবস রাজনৈতিক দলসহ সবার বাধ্যতামূলক পালনে নির্দেশনা চেয়ে রিট করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মোজাম্মেল হক ও আইনজীবী মো. শহীদুল ইসলাম। সেদিন সংক্ষিপ্ত শুনানি নিয়ে আদালত ৮ জানুয়ারি পরবর্তী শুনানির দিন রেখেছিলেন। ওই দিন আইনজীবী মোজাম্মেল হক প্রথম আলোকে বলেছিলেন, বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ, ১৭ এপ্রিল মুজিবনগর দিবস, ১৪ ডিসেম্বর শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস, ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবস, ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবস, ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস, ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস ও ৩ নভেম্বর জেলহত্যা দিবস রাজনৈতিক দলসহ সব নাগরিকের জন্য পালন বাধ্যতামূলক করতে নির্দেশনা চেয়ে রিট করা হয়। কারণ স্বাধীনতার ৪৬ বছরেও এসব বিশেষ দিবসগুলো সবার পালনে নিষ্ক্রিয়তা দেখা যায়।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানিতে অংশ নেন আবেদনকারী মোজাম্মেল হক। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তাপস কুমার বিশ্বাস।

লেখাটি ২৭১ বার পড়া হয়েছে
নিউজ অর্গান টোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


Share


Related Articles

Comments

ফেসবুক/টুইটার থেকে সরাসরি প্রকাশিত মন্তব্য পাঠকের নিজস্ব ও ব্যক্তিগত মতামতের প্রতিফলন, এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

মোট ভিসিটর সংখ্যা
৬২১৮৪৮০৯

অনলাইন ভোট

image
রোডম্যাপহীন নির্বাচনের দিকে এগোচ্ছে দেশ- মাহমুদুর রহমান মান্নার এ বক্তব্য যথার্থ বলে মনে করেন কি?

আপনার মতামত
হ্যাঁ
না
ভোট দিয়েছেন ২৪ জন

আজকের উক্তি

নির্বাচনকালীন সরকার কিংবা সহায়ক সরকার বিষয়টি রাজনৈতিক, এ বিষয়ে আমার কোনো বক্তব্য নেই: প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নুরুল হুদা