অর্থ বাণিজ্য

শেরপুর মাছের মেলা শুরু ১২-১৪ জানুয়ারী

image
Tue, January 9
12:22 2018

বিশেষ প্রতিনিধি:

ණ☛ তিন জেলার প্রাণকেন্দ্র শেরপুর।সিলেট-মৌলভীবাজার-হবিগজ্ঞ জেলার মিলনস্থল শেরপুরে কুশিয়ারা নদীর তীরে তিনদিন ব্যাপী ঐতিহ্যবাহী মাছের মেলা আগামী ১২ জানুয়ারী থেকে শুরু হয়ে শেষ হবে ১৪ জানুয়ারী।

ණ☛ মূলত সনাতন ধর্মালম্বীদের পৌষ সংক্রান্তি উপলক্ষে মাছের মেলা অনুষ্ঠিত হলেও বর্তমানে তা পরিণত হয়েছে সার্বজনীন উৎসবে। প্রায় ২শত বছরের ঐতিহ্যবাহী এ মেলা ইতোমধ্যে সিলেট বিভাগের সবচেয়ে বড় মেলা হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। মাছের মেলা ১২ জানুয়ারী মধ্য রাত থেকে শুরু হয়ে ১৪ জানুয়ারি ভোরে সমাপ্ত হবে।

ණ☛ পূর্বে সপ্তাহব্যাপী এ মেলা চললেও বর্তমানে তার পরিসর ছোট হয়ে ৩দিনে ঠেকেছে। এক সময় এ মেলা মনুমূখ বাজারে মনু নদীর তীরে বসতো। নদী ভাঙ্গন ও যোগাযোগ ব্যবস্থার কারণে বর্তমানে তা মৌলভীবাজার সদর থানার শেরপুরের ব্রাহ্মন গ্রামের পাশে কুশিয়ারা নদীর তীরে অনুষ্ঠিত হয়।

ණ☛ মেলাকে ঘিরে সিলেট-মৌলভীবাজার ও হবিগঞ্জ জেলার মিলনস্থল শেরপুর জনারণ্যে পরিণত হয়। মাছের মেলা নাম হলেও ক্রমে তা লোকজ মেলায় রূপ নিয়েছে। প্রায় এক কিলোমিটার এলাকা জুড়ে কয়েক হাজার দোকানে মাছের পাশাপাশি গৃহস্থালী সামগ্রী ও বিভিন্ন ধরণের কাঠমাল বিক্রি হয়। সাথে পিঠাপুলিসহ নানা ধরণের খাদ্য ও খেলনার দোকান সাজান ব্যবসায়ীরা।

ණ☛ উল্ল্যেখ্য যে বছর দুয়েক আগে মাছের মেলায় বসত জুয়া ও অশ্নিল নৃত্যের আসর।কিন্তু বিগত বছর থেকে এলাকাবাসী ও মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসকের সহযোগীতায় এসব অপকর্ম বন্ধ করা হয়েছে। এজন্য জেলা প্রশাসক ও জেলা পুলিশ সুপার নিয়েছেন কঠোর আইনি হস্তক্ষেপ।মেলায় সব ধরণের অপকর্ম বন্ধে প্রশাসন থাকবে তৎপর। মেলায় আগত দর্শনার্থীদের সার্বক্ষণিক নিরাপত্তার জন্য র‍্যাব,পুলিশ,ডিবি পুলিশ ও আনসার সদস্য নিয়োজিত থাকবেন।

ණ☛ মেলার হারানো ঐতিহ্য ফিরিয়ে দেয়ার জন্য এলাকার যুব সমাজের পক্ষ থেকে মৌলভীবাজার জেলার মাননীয় জেলা প্রশাসক তোফায়েল আহমদ ও পুলিশ সুপার জনাব শাহ জালাল মহোদয়কে জানিয়েছেন অভিনন্দন।

লেখাটি ৩১৭ বার পড়া হয়েছে
নিউজ অর্গান টোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


Share


Related Articles

Comments

ফেসবুক/টুইটার থেকে সরাসরি প্রকাশিত মন্তব্য পাঠকের নিজস্ব ও ব্যক্তিগত মতামতের প্রতিফলন, এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

মোট ভিসিটর সংখ্যা
৬৯৪০৬১৬৪

অনলাইন ভোট

image
ধর্ষণ প্রবণতা বেড়ে যাওয়ায় আপনি কি মনে করেন ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড হওয়া উচিত?

আপনার মতামত
হ্যাঁ
না
ভোট দিয়েছেন ২৭ জন

আজকের উক্তি

নির্বাচনকালীন সরকার কিংবা সহায়ক সরকার বিষয়টি রাজনৈতিক, এ বিষয়ে আমার কোনো বক্তব্য নেই: প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নুরুল হুদা