রাজনীতি

ছেলেকে বাঁচাতে বাবা মায়ের আকুতি!

image
Tue, March 13
11:36 2018

মােঃ ইউনুস আলী, লালমনিরহাট প্রতিনিধি:

১৬ বছরের কিশোর জাহাঙ্গীর আলম। ইচ্ছে ছিল পড়াশুনা করে বড় মানুষ হওয়া, গরিব বাবা মায়ের মুখে হাসি ফোঁটানো। কিন্তু কৈশোরেই ভেঙ্গে যেতে বসেছে তার স্বপ্ন।

টিউমার আক্রান্তে অচল হয়ে গেছে তার দুই পা। বাবা মায়ের কাঁধ এখন তার একমাত্র ভরসা। প্রায় দুইবছর ধরে অন্ধকার ঘরে দিন কাটাচ্ছে সে। এবারের এসএসসি পরীক্ষা দেওয়ার কথা ছিল জাহাঙ্গীর আলমের। কিন্তু পরীক্ষা দূরের কথা জীবন বাঁচাতে হিমশিম খাচ্ছে জাহাঙ্গীর আলম।

দিনমজুর অসহায় বাবা মায়ের পক্ষে তার চিকিৎসার খরচ বহন করা সম্ভব না। তাই ছেলেকে নিয়ে তার পরিবার হতাশায় ভুগছেন।

জাহাঙ্গীর আলম লালমনিরহাট জেলার হাতীবান্ধা উপজেলার ফকিরপাড়া ইউনিয়নের পুর্ব ফকিরপাড়া কামারটারী গ্রামের দিনমজুর আনার হোসেন ও জামিনা খাতুনের ৪ ছেলের মধ্যে সবার বড়। সে বাউরা পাবলিক দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ২০১৮ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিল। নবম শ্রেণীতে হঠাৎ অসুস্থ্য হয়ে পড়েন জাহাঙ্গীর আলম। পরে তার উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুরে নেয়া হলে চিকিৎসক বলেন, তার মেরুদন্ডে টিউমার হয়েছে অপারেশন করতে হবে। তাই আনার হোসেন বাড়ি ভিটে জমি, টিনের ঘরে বিক্রয় ও মানুষের কাছে ধার দেনা করে ছেলের অপারেশন করান। টিউমার অপারেশন করতে তার পিতা সব বিক্রয় করে আজ নি:স্ব। অপারেশনের কিছু দিন যেতে না যেতে আবারও অসুস্থ্য হয়ে পরেন জাহাঙ্গীর আলম। আবারও পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর ধরা পরে কোমড়ে টিউমার।

রংপুর মেডিকেল কলেজের অনকোলজিস্ট বিভাগের অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান ডাঃ স্বপন কুমার নাথ জানিয়েছেন, কোমড়ের টিউমার অপারেশন করতে প্রায় এক লক্ষ টাকার প্রয়োজন।

গরিব দিনমজুর বাবা মায়ের পক্ষে ছেলের চিকিৎসার ব্যয় বহন করা খুই কষ্টকর। তাই ছেলেকে বাঁচাতে বাবা মা মিলে সবার দাঁড়ে দাঁড়ে ঘুরছেন।

জাহাঙ্গীর আলম বলেন, নড়াচড়া করতে খুবই কষ্ট, আগের মত হাটতে পারিনা। কেউ আমার চিকিৎসার জন্য সাহায্য করলে আমি তাঁর কাছে চিরকৃতজ্ঞ থাকব।

জাহাঙ্গীর আলমের বাবা আনার হোসেন বলেন, ছেলে চিকিৎসা করতে সব শেষ করে দিয়ে আজ স্বামী স্ত্রী দিনমজুরী করছি। ছেলেকে বাচাঁতে সমাজের বিত্তবানদের সহযোগীতা কামনা করছি।

বাউরা পাবলিক দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আজিজার রহমান বলেন, মেধাবী ছাত্রের চিকিৎসা জন্য সমাজের দানশীল ব্যক্তিদের এগিয়ে আসার জন্য অনুরোধ করছি।

সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা- তার পিতা আনার হোসেন- যোগাযোগ ও বিকাশ নম্বর-০১৭০৭-৪২০৭৩০। বড়খাতা রূপারী ব্যাংক শাখা, আনার হোসেন, সঞ্চয়ী হিসাব নং-এসবি ৯৯৯৬।

লেখাটি ১৩৬ বার পড়া হয়েছে
নিউজ অর্গান টোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


Share


Related Articles

Comments

ফেসবুক/টুইটার থেকে সরাসরি প্রকাশিত মন্তব্য পাঠকের নিজস্ব ও ব্যক্তিগত মতামতের প্রতিফলন, এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

মোট ভিসিটর সংখ্যা
৭১৬৭৫৩৫৯

অনলাইন ভোট

image
ধর্ষণ প্রবণতা বেড়ে যাওয়ায় আপনি কি মনে করেন ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড হওয়া উচিত?

আপনার মতামত
হ্যাঁ
না
ভোট দিয়েছেন ৬৭ জন

আজকের উক্তি

নির্বাচনকালীন সরকার কিংবা সহায়ক সরকার বিষয়টি রাজনৈতিক, এ বিষয়ে আমার কোনো বক্তব্য নেই: প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নুরুল হুদা