অর্থ বাণিজ্য

অর্ধেক দরে হাট বাজার ইজারার পাঁয়তারা

image
Tue, April 10
03:07 2018

মোঃ ইউনুস আলী, লালমনিরহাট প্রতিনিধি:

লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলায় সরকারী দরের অর্ধেকের কম দরে ৪টি হাট বাজার নিলাম দেয়ার পাঁয়তাড়া চলছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ফলে সরকারের রাজস্ব হাড়াতে পারে প্রায় ১৯ লাখ টাকা। এদিকে ন্যায্য মূল্য হাট-বাজার ইজারা দেবার দাবি জানিয়ে আবেদন করেছে এলাকাবাসী।

হাট বাজার গুলো হলো, উপজেলার মহিষখোচা ইউনিয়নের কুষ্টারীরহাট, ভাদাই ইউনিয়নের বুড়িরহাট, দুর্গাপুর ইউনিয়নের শঠিবাড়িহাট ও ভেলাবাড়ি ইউনিয়নের ভেলাবাড়ি দৈনিক বাজার।

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয় সুত্রে জানা গেছে, ১৪২৫ বাংলা সনে হাট বাজার ইজারা প্রদানে উপজেলার ১৭টি হাট বাজারের বিপরীতে দরপত্র আহবান করে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দফতর। দরপত্র মোতাবেক প্রথম পর্যয়ে ১৩টি হাট বাজার সরকারী দর অতিক্রম করায় চুড়ান্ত নিষ্পত্তি করে উপজেলা হাট বাজার ইজারা কমিটি। বাকী ৪টি হাট বাজার দ্বিতীয় ও তৃতীয় পর্যয়ে দরপত্র আহবান করা হলেও ইজারাদারগন গোপন আঁতাত করে সরকারী মুল্যের অর্ধেক মুল্যও দেন নি। ফলে ঝুলে থাকে এসব হাট বাজার ইজারা কার্যক্রম।

জানা গেছে, তৃতীয় দরপত্রে কুষ্টারীহাটটি সরকারী মুল্য ৩১ লাখ ৮২ হাজার টাকার স্থানে তমিজার রহমান ১৯ লাখ ১০ হাজার টাকায়, বুড়িরহাটে সরকারী মুল্য ১১ লাখ টাকার স্থানে ফরহাদ আলম সুমন ৮ লাখ ৭৫ হাজার টাকায়, শঠিবাড়িহাটে সরকারী মুল্য ৩ লাখ ৩৭ হাজার টাকার স্থানে আমিনুর রহমান ১ লাখ ৭৫ হাজার টাকায় এবং ভেলাবাড়ি দৈনিক বাজারে সরকারী মুল্য ৪৯ হাজার টাকার স্থানে নুরল আমিন ১০ হাজার টাকায় সর্বচ্চ দরদাতা স্বীকৃতি পান। কিন্তু সরকারী মুল্য অতিক্রম না হওয়ায় এ ৪টি হাট বাজার নিষ্পত্তি হয় নি।

এ নিয়ে গত ৫ এপ্রিল বিশেষ সমন্বয় কমিটির সভা আহবান করে উপজেলা পরিষদ।

এ সভায় তৃতীয় পর্যয়ের সর্বোচ্চ দরদাতাকে হাট বাজার দেয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহন করে চুড়ান্ত অনুমোদনের জন্য জেলা প্রশাসকের নিকট সুপারিশ করা হয়। এ মুল্য হাট বাজার ইজারা প্রদান করলে উপজেলার রাজস্ব কমে যাবে প্রায় ১৮ লাখ ৫৮ হাজার টাকা।

এ দিকে সরকারী মুল্যের অর্ধেকের নিচে হাট বাজার ইজারা না দিয়ে পুনরায় দরপত্র আহবানের দাবি করে স্থানীয় জনগণ ৪টি আবেদন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে। উপজেলা ইজারা কমিটি জনগনের এ ৪টি আবেদনও জেলা প্রশাসকের কার্যলয়ে অবগতির জন্য প্রেরণ করেন।

কুষ্টারীহাটের সাবেক ইজারাদারের অংশিদার নুর আলম সেফাউল জানান, সরকারী মুল্যের নিচে হাট বাজার না দিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে আবেদন করা হয়েছে। পুনঃ দরপত্র আহবান করে সুষ্ঠ ভাবে ইজারা হলে সরকারী মুল্য অতিক্রম করবে। সেক্ষেত্রে সরকারের দ্বিগুন রাজস্ব বাড়বে বলে তিনি দাবি জানান।

আদিতমারী উপজেলা হাট বাজার ইজারা কমিটির সভাপতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আসাদুজ্জামান জানান, তৃতীয় পর্যায়ের সর্বোচ্চ দরদাতাদের মুল্য উল্লেখ করে উপজেলা বিশেষ সমন্বয় কমিটির সিদ্ধান্তসহ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে। জেলা প্রশাসকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী চুড়ান্ত হবে এসব হাট বাজার ইজারা কার্যক্রম।

জেলা প্রশাসক শফিউল আরিফ জানান, উপজেলা সমন্বয় কমিটির সিদ্ধান্ত ও স্থানীয়দের আবেদনগুলো পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। তবে সরকারী রাজস্ব বৃদ্ধির বিষয়টি গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

লেখাটি ৮৪ বার পড়া হয়েছে
নিউজ অর্গান টোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


Share


Related Articles

Comments

ফেসবুক/টুইটার থেকে সরাসরি প্রকাশিত মন্তব্য পাঠকের নিজস্ব ও ব্যক্তিগত মতামতের প্রতিফলন, এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

মোট ভিসিটর সংখ্যা
৭১৬৭৫৩৪৯

অনলাইন ভোট

image
ধর্ষণ প্রবণতা বেড়ে যাওয়ায় আপনি কি মনে করেন ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড হওয়া উচিত?

আপনার মতামত
হ্যাঁ
না
ভোট দিয়েছেন ৬৭ জন

আজকের উক্তি

নির্বাচনকালীন সরকার কিংবা সহায়ক সরকার বিষয়টি রাজনৈতিক, এ বিষয়ে আমার কোনো বক্তব্য নেই: প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নুরুল হুদা