রাজনীতি

জামিনে মুক্ত হলেন নওগাঁ-৬ আসনের আ.লীগ মনোনয়ন প্রত্যাশী হেলাল

image
Fri, April 13
02:32 2018

মোঃ খালেদ বিন ফিরোজ, নওগাঁ প্রতিনিধি:

উপজেলা আওয়ামীলীগ অফিস ভাংচুর করার ঘটনায় দায়ের করা মিথ্যা মামলায় দীর্ঘ ৪১দিন পর জামিনে মুক্ত হলেন নওগাঁ-৬ (রাণীনগর-আত্রাই) আসনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী রাণীনগর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন হেলাল।

জানা যায়, গত বছর ১৩ জুন বিকেলে উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন হেলালের ছোট ভাই উপজেলা যুবলীগের নেতা গোলাম মোস্তফাকে স্থানীয় আওয়ামীলীগের একটি গ্রুপ হাসুয়া দিয়ে কুপিয়ে গুরুত্বর আহত করে। এ ঘটনায় উত্তেজিত জনতা উপজেলা আওয়ামীলীগের অফিস ভাংচুর করে। এ ঘটনায় রাণীনগর থানায় ১৫ জুন আনোয়ার হোসেন হেলালসহ ২৫ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়।

মামলায় আওয়ালীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন হেলাল সহ অন্যান্য আসামী হাইকোর্টের অগ্রিম জামিনে ছিলেন। এমতাবস্তায় গত ২৭ ফেব্রুয়ারী আনোয়ার হোসেন হেলাল নওগাঁ নি¤œ আদালতে হাজিরা দিতে গেলে আদালত জামিন না মঞ্জুর করে তাদেরকে জেলা হাজতে প্রেরণ করেন। মামলায় গত ১৪ই মার্চ আদালতের স্থায়ী জামিনে সকলে মুক্ত হলেও গত ১০ফেব্রুয়ারী রাণীনগর থানার ০৪/১৯নং ছমিলের ফারাই কাঠ আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়া আরো একটি মামলায় আনোয়ার হোসেন হেলালকে পুনরায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়। গত ৮ এপ্রিল পুনরায় বিজ্ঞ আদালত থেকে স্থায়ী জামিনে তিনি মুক্ত হন।

আওয়ালীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন হেলাল জানান, তিনি এবং তার পরিবার বঙ্গবন্ধু ও আওয়ামীলীগের আদর্শে বিশ্বাসী। যতদিন বেঁচে থাকবো তত দিন আওয়ামীলীগের আদর্শে চলবো। কোন মিথ্যা মামলা দিয়েই তার জনপ্রিয়তা কমানো বা দমানো যাবে না। আগামী জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে তার জনপ্রিয়তার আতঙ্কিত হয়ে স্থানীয় এক আওয়ামীলীগ নেতা তার বিরুদ্ধে এই মিথ্যা মামলা দেয়ায় করিয়েছেন। এই মিথ্যা মামলার তীব্র নিন্দা ও উধ্বর্তন নেতৃবৃন্দের কাছে সঠিক বিচারের দাবি জানান।

লেখাটি ৯৩ বার পড়া হয়েছে
নিউজ অর্গান টোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


Share


Related Articles

Comments

ফেসবুক/টুইটার থেকে সরাসরি প্রকাশিত মন্তব্য পাঠকের নিজস্ব ও ব্যক্তিগত মতামতের প্রতিফলন, এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

মোট ভিসিটর সংখ্যা
৬৯৭০১৯৪৪

অনলাইন ভোট

image
ধর্ষণ প্রবণতা বেড়ে যাওয়ায় আপনি কি মনে করেন ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড হওয়া উচিত?

আপনার মতামত
হ্যাঁ
না
ভোট দিয়েছেন ৩২ জন

আজকের উক্তি

নির্বাচনকালীন সরকার কিংবা সহায়ক সরকার বিষয়টি রাজনৈতিক, এ বিষয়ে আমার কোনো বক্তব্য নেই: প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নুরুল হুদা