অর্থ বাণিজ্য

প্রতীক নিয়ে করমর্দনে ব্যস্ত হাজীগঞ্জের ব্যবসায়ী নেতারা

image
Fri, April 20
03:37 2018

মঞ্জুর আলম:

হাজীগঞ্জে আগামী ২৫ এপ্রিল নির্বাচনকে ঘিরে করমর্দনে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন ব্যবসায়ী নেতারা। চাঁদপুর জেলার রাজধানী হাজীগঞ্জ বাজারকে বাণিজ্যিক নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে এই প্রয়াস সবার।

রবিবার প্রতীক পাওয়ার পর থেকে রংবেরঙের প্লে-কার্ড ও ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে পুরো বাজার। প্রত্যেক প্রার্থীই তাদের প্রাপ্য ভোটটাকে নিশ্চিত করতে ব্যবসায়ীদের দোকানে দোকানে গিয়ে করমর্দন করছেন। আগামী ২৫ এপ্রিল ব্যবসায়ীদের প্রাণের সংগঠন হাজীগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচন উপলক্ষ্যে গত রবিবার(৮ এপ্রিল) ও সোমবার(৯ এপ্রিল) মননোয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন ৬৪ জন প্রার্থী। মঙ্গলবার ৬৩ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েই ভোট চাইতে ব্যবসায়ীদের দ্বারে দ্বারে ঘুরতে শুরু করেন। এই আমেজে জমে ওঠেছে নির্বাচনী পরিবেশ।

এদিকে ২৯টি পদের মধ্যে ২৮টি পদে প্রতিদ্বন্দীতা গড়ে উঠলেও ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে সাবেক ১নং ওয়ার্ড কমিশনার আবু নোমান রিয়াজ এবং ২নং ওয়ার্ড কমিশনার পদে মেন্দু মিয়া ও আলহাজ্জ কবির আহম্মেদ এককভাবে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ ও জমা দেন। বুধবার যাচাই-বাছাই শেষে তাদের বিজয় নিশ্চিত হওয়া গেছে। প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা নয়ন মনি সূত্রধর, নির্বাচন কমিশনার ইকবালুজ্জামান ফারুক ও নির্বাচন কমিশন সদস্য সচিব মনিরুজ্জামান বাবলু বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তবে নির্বাচনে সকল প্রার্থীর কাছে একটাই দাবী তুলেছেন ব্যবসায়ীরা। সেটি হলো- ব্যবসা বান্ধব প্রতিনিধি চাই। হাজীগঞ্জকে বাণিজ্যিক নগরী হিসেবে হিসেবে ঘোষণা চাই। গত নির্বাচনের মতোই একটি উৎসব মুখর নির্বাচনের অপেক্ষায় রয়েছে চাঁদপুর জেলার সকল শ্রেণি পেশার মানুষ।

নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, রবিবার হাজীগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী সমিতি নির্বাচনে বিভিন্ন পদে প্রতীক পেয়েছেন - সভাপতি পদে গোলাপ ফুল প্রতীকে আশফাকুল আলম চৌধূরী ও বাই সাইকেল প্রতীকে আহসান হাবিব অরুন, সহ-সভাপতি পদে মোমবাতি প্রতীকে আলহাজ্জ মিজানুর রহমান, দোয়াত-কলম প্রতীকে জামাল উদ্দিন তালুকদার ও হারিকেন প্রতীকে দেলোয়ার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক পদে ছাতা প্রতীকে হায়দার পারভেজ সুজন ও আনারস প্রতীকে সালাহ উদ্দিন ফারুক মামুন, সহ-সাধারণ সম্পাদক পদে হাতি প্রতীকে সাংবাদিক গাজী মোঃ নাছির উদ্দিন, প্রজাপতি প্রতীকে শেখ তোফায়েল আহম্মেদ, কাপ-পিরিচ প্রতীকে আবুল কালাম আজাদ, বই প্রতীকে সাহাবুদ্দিন সাবু ও বাঘ প্রতীকে সাইফুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক পদে চাকা প্রতীকে মোঃ মাসুদ হোসেন, মই প্রতীকে আলী নেওয়াজ রোমান, মাছ প্রতীকে আবু হেনা বাবলু ও টেবিল প্রতীকে শহীদুল্যাহ, কোষাধ্যক্ষ(অর্থ সম্পাদক) পদে সিলিং ফ্যান প্রতীকে সাংবাদিক হাছান মাহমুদ ও উড়োজাহাজ প্রতীকে মজিবুর রহমান, দপ্তর সম্পাদক পদে তালাচাবি প্রতীকে আবুল কাশেম মুন্সী, কলম প্রতীকে মোরশেদুল আলম ও হরিণ প্রতীকে জামাল হোসেন মজুমদার, প্রচার সম্পাদক পদে আম প্রতীকে জসীম উদ্দিন, টেলিভিশন প্রতীকে ইমামুল হাসান হেলাল, বক প্রতীকে হারুন অর রশিদ, নলকূপ প্রতীকে কাউছার আহম্মেদ ও বটগাছ প্রতীকে বাহালুল আলম খোকন, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে আবু নোমান রিয়াজ নির্বাচিত, বাণিজ্য সম্পাদক পদে মোটর সাইকেল প্রতীকে মোশারফ হোসাইন লিটন ও স্টীল আলমারি প্রতীকে মোহাম্মদ হোসেন, শিল্প বিষয়ক সম্পাদক পদে দোয়েল পাখি প্রতীকে ইমরান হোসেন, টেবিল ফ্যান প্রতীকে সুমন কর্মকার, ঘুড়ি প্রতীকে ইলিয়াছ মিজি ও মাইক প্রতীকে হাফেজ মোঃ আবুল কাশেম, কমিশনার পদে ১নং ওয়ার্ডে মোরগ প্রতীকে মোঃ মনির হোসেন, ডাব প্রতীকে মোশারফ হোসেন টিটু, বৈদ্যুতিক বাল্ব প্রতীকে আকতারুজ্জামান, মোবাইল প্রতীকে জাকির হোসেন, জগ প্রতীকে মহিবুর রহমান খোকন, ২নং ওয়ার্ডে মোরগ প্রতীকে এসএম ইবরাহিম খলিল পাটওয়ারী, ডাব প্রতীকে মনির হোসেন সাগর ও মোবাইল সেট প্রতীকে রফিকুল ইসলাম, ৩নং ওয়ার্ডে ডাব প্রতীকে মোঃ মহিউদ্দিন, মোবাইল সেট প্রতীকে জিসান আহম্মেদ ছিদ্দিকী, হাতঘড়ি প্রতীকে অলি উল্যাহ, মোরগ প্রতীকে খন্দকার হারুন অর রশিদ ও বৈদ্যুতিক বাল্ব প্রতীকে
আমীর হোসেন, ৪নং ওয়ার্ডে আলহাজ্জ কবির আহম্মেদ ও মেন্দু মিয়া নির্বাচিত, ৫নং ওয়ার্ডে মোবাইল সেট প্রতীকে মোঃ জামাল মিয়া, মোরগ প্রতীকে হাবিবুর রহমান, জগ প্রতীকে লিটন হোসেন, বৈদ্যুতিক বাল্ব প্রতীকে খোরশেদ আলম ও ডাব প্রতীকে মিজানুর রহমান, ৬নং ওয়ার্ডে বালতি প্রতীকে মোঃ বিল্লাল হোসেন পাটওয়ারী, মোবাইল সেট প্রতীকে নূরে আলম ভূঁইয়া সেলিম, মোরগ প্রতীকে তাপস সাহা, ডাব প্রতীকে নিতাই চন্দ্র সাহা ও বৈদ্যুতিক বাল্ব প্রতীকে হেলাল উদ্দিন এবং ৭নং ওয়ার্ডে ডাব প্রতীকে দয়াল রঞ্জন চক্রবর্তী, হাত ঘড়ি প্রতীকে মাসুদ মজুমদার, মোবাইল সেট প্রতীকে আল আমিন, মোরগ প্রতীকে মানিক মজুমদার ও বৈদ্যুতিক বাল্ব প্রতীকে অহিদুল ইসলাম মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন।

চলতি বছর নতুনভাবে ৬শ’রও বেশি ভোটার অন্তর্ভুক্ত হয়েছেন। আরও জানা গেছে, ১নং ওয়ার্ডে ৪৩১ জন, ২নং ওয়ার্ডে ২২৫ জন, ৩নং ওয়ার্ডে ৩৬৪ জন, ৪নং ওয়ার্ডে ১৯৬ জন, ৫নং ওয়ার্ডে ২২৮ জন, ৬নং ওয়ার্ডে ২০৬ জন ও ৭নং ওয়ার্ডে ৭৭২ জন ভোটার আগামী ২৫ এপ্রিল প্রত্যক্ষ ভোটে অংশ গ্রহণ করতে পারবেন। ২৯টি পদের মধ্যে প্রতিটি সম্পাদকীয় পদে ১ জন করে ও ১নং ওয়ার্ডে ২ জন, ২নং ওয়ার্ডে ২ জন, ৩নং ওয়ার্ডে ৩ জন, ৪নং ওয়ার্ডে ২ জন, ৫নং ওয়ার্ডে ৩ জন, ৬নং ওয়ার্ডে ২ জন ও ৭নং ওয়ার্ডে ৪ জন প্রার্থী নির্বাচিত হবেন।

ক্যাপশনঃ বুধবার হাজীগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী সমিতি নির্বাচনে গোলাপ ফুল প্রতীক নিয়ে সভাপতি পদে পশ্চিম বাজারে কয়েকজন ভোটারের সাথে করমর্দন করছেন আলহাজ্জ অসফাকুল আলম চৌধুরী। ছবি- মঞ্জুর আলম।

লেখাটি ৮৯ বার পড়া হয়েছে
নিউজ অর্গান টোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


Share


Related Articles

Comments

ফেসবুক/টুইটার থেকে সরাসরি প্রকাশিত মন্তব্য পাঠকের নিজস্ব ও ব্যক্তিগত মতামতের প্রতিফলন, এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

মোট ভিসিটর সংখ্যা
৭৪৮৭২৬০৪

অনলাইন ভোট

image
মাদক বিরোধী অভিযানের নামে অব্যাহত ক্রসফায়ার সমর্থন করেন কি?

আপনার মতামত
হ্যাঁ
না
ভোট দিয়েছেন ৭৯ জন

আজকের উক্তি

নির্বাচনকালীন সরকার কিংবা সহায়ক সরকার বিষয়টি রাজনৈতিক, এ বিষয়ে আমার কোনো বক্তব্য নেই: প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নুরুল হুদা