বিনোদন

প্যারিসে প্রকাশ রায়ের 'ইলুসিয়ন দু’ন প্রমনাদ' এর প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত

image
Wed, April 25
11:19 2018

বদরুজ্জামান জামান, প্যারিস থেকে:

ফ্রান্স প্রবাসী নির্মাতা প্রকাশ রায়ের “ইলুসিয়ন দু’ন প্রমনাদ” (ILLUSION D’UNE PROMENADE) নামে একটি তথ্যচিত্রের প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়েছে গত শনিবার (২১এপ্রিল) সন্ধ্যায় প্যারিসের একটি হলে। বিশিষ্ট গবেষক ও লেখক ড. প্রিথিন্দ্র মুখার্জী কে নিয়ে প্রকাশ রায় নির্মাণ করেন “ILLUSION D’UNE PROMENADE » নামে ৫০ মিনিটের এই তথ্যচিত্রটি । প্রদর্শনীতে বাঙালি বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ ছাড়াও বিপুল ফরাসিদের উপস্থিতি ছিল লক্ষ্যনীয়।

তথ্যচিত্রে উঠে এসেছে বর্তমান সময় পর্যন্ত ড. মুখার্জীর জীবনের নানাদিক । বিশেষ করে শারীরিক প্রতিবন্ধকতা সত্ত্বেও তাঁর উদ্যমী ও দৃঢ় মনোভাবের কারণে সফলতার শিখরে আরোহণ করতে সক্ষম হয়েছেন।

ড. প্রিথিন্দ্র মুখার্জী কলকাতায় জন্মগ্রহণ করলেও ১০ বছর বয়সে পণ্ডীচারি চলে যান । সেখানে ২০ বছর ছিলেন এবং বুকের মধ্যে বাংলাকে ধারণ করেছিলেন। বাংলা চর্চা সেই তখন থেকে। বিদেশি ভাষার ব্যাবহার বাংলার মাধুর্যতাকে যাতে নষ্ট না করে সেদিকে তাঁর নজর ছিল প্রবল। বাংলার প্রতি তাঁর এই ভালবাসা আরো প্রগাঢ় হল পণ্ডীচারি গিয়ে।

ড. প্রিথিন্দ্র মুখার্জী ১৯৬৬ সালে ভারত থেকে ফ্রান্স আসেন। ফ্রান্সে পড়াশুনাসহ গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে গবেষণা কাজে নিজেকে মগ্ন রাখেন। বাংলা ভাষার মতো ফরাসি ও ইংরেজিতে তাঁর ব্যাপক দক্ষতা মৌলিক রচনার পাশাপাশি একজন শ্রেষ্ঠ বিদেশি গ্রন্থের অনুবাদক হিসাবে ব্যাপক খ্যাতি এনে দিয়েছে। তিনি প্রায় ষাটটি প্রসিদ্ধ গ্রন্থের অনুবাদ করেন। তাছাড়া কবি রবিন্দ্রনাথ ঠাকুরের একশ আট’টি কবিতা ফরাসি ও ইংরেজি ভাষায় অনুবাদ করেন এবং একই গ্রন্থে তা প্রকাশ হয়।

বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় তিনি ফরাসি জনপ্রিয় “লু মণ্ড” পত্রিকাসহ বিভিন্ন পত্রিকায় বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে অনেক কবিতা লিখেন এবং মুক্তিযুদ্ধের উৎসাহ ব্যঞ্জক রচিত অনেক বাংলা কবিতার অনুবাদ করেন যা ফরাসি বিভিন্ন পত্রিকার সাহিত্য পাতা ও সংকলনে প্রকাশ হয়।

ড. প্রিথিন্দ্র মুখার্জী বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক “মৈত্রী সম্মাননা”, ফরাসি সর্বোচ্চ রাষটিয় সম্মাননা “নাইট” উপাধিসহ অনেক সম্মাননা লাভ করেন। প্রদর্শনী শুরুর অনেক আগেই ড.মুখার্জী হুইলচেয়ারে করে হলে প্রবেশ করেন দর্শকেরসারিতে হুইলচেয়ারে বসে ৫০ মিনিটের এই প্রদর্শনী দেখেন। প্রদর্শনী শেষে তাঁর প্রতিক্রিয়ায় বলেন- তিনি বাংলা ভাষা সংস্কৃতি প্রচার প্রসার ও মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন।

ড. প্রিথিন্দ্র মুখার্জী সাত বছর বয়সে টাইপয়েড আক্রান্ত হলে তাঁর পা দুটো অনেকটা অচল হয়ে যায়। তবুও প্রবল ইচ্ছা শক্তি , মানসিক দৃঢ়তা ও অবিরাম প্রচেষ্টা তাঁকে সফলতার শিখরে নিয়ে এসেছে।

নির্মাতা প্রকাশ রায় তাঁর প্রতিক্রিয়ায় বলেন অনেক প্রতিবন্ধকতা সত্ত্বেও তিনি যে কাজগুলো করে যাচ্ছেন তা সামাজিক সাংস্কৃতিক ও দেশের দায়বদ্ধতা থেকে করে যাচ্ছেন। উল্লেখ্য ইতিপূর্বে নির্মাতা প্রকাশ রায় নির্মিত মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক তথ্যচিত্র “একটি পতাকার জন্ম”এবং অভিবাসীদের নিয়ে নির্মিত “অনিশ্চিত যাত্রা » দেশ বিদেশে ব্যাপক জনপ্রিয়তা ও সমাদৃত হয়।

লেখাটি ৭২ বার পড়া হয়েছে
নিউজ অর্গান টোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


Share


Related Articles

Comments

ফেসবুক/টুইটার থেকে সরাসরি প্রকাশিত মন্তব্য পাঠকের নিজস্ব ও ব্যক্তিগত মতামতের প্রতিফলন, এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

মোট ভিসিটর সংখ্যা
৭১৬৮৪৫৬৪

অনলাইন ভোট

image
ধর্ষণ প্রবণতা বেড়ে যাওয়ায় আপনি কি মনে করেন ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড হওয়া উচিত?

আপনার মতামত
হ্যাঁ
না
ভোট দিয়েছেন ৬৭ জন

আজকের উক্তি

নির্বাচনকালীন সরকার কিংবা সহায়ক সরকার বিষয়টি রাজনৈতিক, এ বিষয়ে আমার কোনো বক্তব্য নেই: প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নুরুল হুদা