রাজনীতি

সাংবাদিক মনিরুল ইসলামের ওপর ছাত্রলীগের হামলা!

image
Wed, June 13
04:25 2018

স্টাফ রিপোর্টার:

দেশের গুণী লেখক, সাংবাদিক, কলামিস্ট ও বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার সাংবাদিক সংস্হা (বামাস)'র কেন্দ্রীয় কো-অর্ডিনেটর মো: মনিরুল ইসলাম রয়েল কে ফিল্মি স্টাইলে মারধর করে স্হানীয় সাবেক ছাত্রলীগ নেতা তামিম, নুর ইসলাম কিনু, আল কিবরিয়া বিশাল সহ নাম না জানা আরও বেশ কয়েকজন।

সাংবাদিক- মনিরুল ইসলামের এমন ঘটনা শুনে একদল মানবাধিকার কর্মি ঘটনার সত্যতা যাচাই করার জন্য স্হানীয় এলাকায় খোঁজ খবর নেয়। ঘটনার সুত্র অনুযায়ী গত ৯ জুন ঠাকুরগাঁও জেলার রাণীশংকৈল উপজেলার লেহেম্বা ইউনিয়নের বিরাশি বাজারে লেখক মনিরুল ইসলাম রয়েল এক ইফতারি পার্টিতে অতিথি হিসেবে যায়।

ইফতারি শেষে বাড়ি ফেরার পথে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা তামিম, কিনু, বিশাল সহ কয়েকজন তিনাকে ফাঁকা রাস্তায় একা পেয়ে বে-ধরক মারধরসহ মেরে হাত পা ভেঙে দেয় ও অস্ত্র দেখিয়ে মেরে ফেলার হুমকি দেয় এবং অশ্লীল ভাষায় গালি দেয়। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন দেশের গুণী সাংবাদিক- লেখকেরা সহ সুশীল সমাজ। দেশের গুণী কলম সৈনিক লেখকেরা বলেন, এদের অাইনের আওতায় এনে সর্বোচ্চ শাস্তি দেওয়া উচিত।

বিষয়টি নিয়ে মানবাধিকার সংস্হার চেয়ারম্যানের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি খুব ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, সাংবাদিক ও লেখক মনিরুল ইসলাম রয়েল আমার সংস্হার একজন কেন্দ্রীয় সমন্বয়কারী। সে একজন খুব ভালো ছেলে মানবাধিকার সংস্হায় সে কাজ করছে। আমি বিষয়টি নিয়ে খুব জোড়ালো ভূমিকা রাখছি।

সাংবাদিক- মনিরুল ইসলাম জানান, শীঘ্রই এ ঘটনার প্রেক্ষিতে আইনের আশ্রয় নিবো (মামলা করবো)। বর্তমানে শারীরিক ভাবে কিছুটা সুস্থ ও বাসায় রেস্টে আছি।

ছত্রলীগের বিরুদ্ধে তাদের অপকর্মের নানা সত্য ও অনিয়মের সংবাদ প্রকাশের জেরেই এমন ঘটনা ঘটে বলেও দাবি করেন তিনি।

লেখাটি ১৯৮ বার পড়া হয়েছে
নিউজ অর্গান টোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


Share


Related Articles

Comments

ফেসবুক/টুইটার থেকে সরাসরি প্রকাশিত মন্তব্য পাঠকের নিজস্ব ও ব্যক্তিগত মতামতের প্রতিফলন, এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

মোট ভিসিটর সংখ্যা
৭৩২৮১১১৪

অনলাইন ভোট

image
মাদক বিরোধী অভিযানের নামে অব্যাহত ক্রসফায়ার সমর্থন করেন কি?

আপনার মতামত
হ্যাঁ
না
ভোট দিয়েছেন ৫১ জন

আজকের উক্তি

নির্বাচনকালীন সরকার কিংবা সহায়ক সরকার বিষয়টি রাজনৈতিক, এ বিষয়ে আমার কোনো বক্তব্য নেই: প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নুরুল হুদা