রাজনীতি

নজিপুর সরকারি কলেজে এইচএসসি ভর্তিতে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগ!

image
Tue, July 10
06:00 2018

ইখতিয়ার উদ্দীন আজাদ, নওগাঁ প্রতিনিধি:

নওগাঁর পত্নীতলায় নজিপুর সরকারি কলেজে এইচএসসি’র ভর্তিতে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগ উঠেছে।

স্থানীয় শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের অভিযোগ, বোর্ড নির্ধারিত পরিপত্রের বাইরে এসব অর্থ আদায় করা হচ্ছে। এতে দারিদ্র অসহায় শিক্ষার্থীরা বাধ্য হয়ে অতিরিক্ত অর্থ পরিশোধ করছেন। অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের বিষয়ে শিক্ষার্থীরা প্রতিবাদ করলে আমলে নিচ্ছেন না কলেজ কর্তৃপক্ষ।

জানা যায়, শিক্ষা বোর্ডের পরিপত্র অনুযায়ী মফস্বল তথা উপজেলা/পৌর এলাকায় সেশন চার্জ ভর্তিসহ সর্বসাকুল্যে ১ হাজার নির্ধারণ করে দেন। এর বাইরে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের সুযোগ নেই। তারপরও নজিপুর সরকারি কলেজ নীতিমালা উপেক্ষা করে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে দ্বিগুন অর্থ আদায় করছেন। অতিরিক্ত অর্থ দিতে না পারায় অনেক শিক্ষার্থীকে ভর্তি নেওয়া হয়নি।

রাকিব, রশিদ, সুমি নামের শিক্ষার্থীরা জানান, তাদের কাছ থেকে বিজ্ঞান শাখার জন্য ১ হাজার ৯শ ৫৫ টাকা নেওয়া হয়েছে। শরিফুল, ফরিদ নামের শিক্ষার্থীরা জানান ১ হাজার ৯শ ৫৫ টাকা দিতে না পারায় বোর্ড নির্ধারিত ফি দিয়ে ভর্তি নেয়নি কলেজ কর্তৃপক্ষ।

এবিষয়ে অভিভাবকরা হতাশ হয়ে বলেন, শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের পরিপত্র অনুযায়ী তাদের কাছ থেকে ১ হাজার নির্ধারণ করলেও কলেজ কর্তৃপক্ষ নিজের ইচ্ছে মত প্রায় ২ হাজার টাকা আদায় করছেন। নিজের সন্তানের ভবিষ্যতের কখা চিন্তা করে বাধ্য হয়ে ঋণ দেনা করে বর্ধিত হারে টাকা পরিশোথ করছি। নজিপুর সরকারি কলেজের (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যক্ষ লোকনুজ্জামান বলেন, পাশের উপজেলার কলেজগুলোতো নিচ্ছে। আমরা নিলে দোষ কোথায়? বর্ধিত হারে ফি নেওয়ার বিধান আছে বলে তিনি চ্যালেঞ্জ করেন।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার ওয়াজেদ আলী মৃধা জানান, বোর্ড নির্ধারিত ফির বেশী নেওয়ার কোন বিধান নেই।

লেখাটি ৭৭ বার পড়া হয়েছে
নিউজ অর্গান টোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


Share


Related Articles

Comments

ফেসবুক/টুইটার থেকে সরাসরি প্রকাশিত মন্তব্য পাঠকের নিজস্ব ও ব্যক্তিগত মতামতের প্রতিফলন, এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

মোট ভিসিটর সংখ্যা
৭৫১২০৯৬৯

অনলাইন ভোট

image
মাদক বিরোধী অভিযানের নামে অব্যাহত ক্রসফায়ার সমর্থন করেন কি?

আপনার মতামত
হ্যাঁ
না
ভোট দিয়েছেন ৭৯ জন

আজকের উক্তি

নির্বাচনকালীন সরকার কিংবা সহায়ক সরকার বিষয়টি রাজনৈতিক, এ বিষয়ে আমার কোনো বক্তব্য নেই: প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নুরুল হুদা