বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় কেন পুলিশের বিশেষ অভিযান?

রাজনীতি

বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় কেন পুলিশের বিশেষ অভিযান?

image
Thu, August 9
03:34 2018

নিউজ অর্গান টোয়েন্টিফোর.কম:

নিরাপদ সড়কের দাবিতে ছাত্র বিক্ষোভের প্রেক্ষাপটে ঢাকার বসুন্ধরা আবাসিক এলাকাকে ঘিরে পুলিশের তৎপরতা বেড়েছে গত কয়েকদিন ধরে।

বুধবার রাতে ওই এলাকায় পুলিশ বিশেষ অভিযান চালায়।

প্রশ্ন হচ্ছে, ছাত্র বিক্ষোভের প্রেক্ষাপটে পুলিশ বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় কেন অভিযান পরিচালনা করলো?

ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার আসাদুজ্জামান মিয়া বুধবার রাতে যদিও বলেছেন, এটি পুলিশের চলমান কার্যক্রমের একটি অংশ। কিন্তু ওই এলাকায় বসবাসরত শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলে কিছুটা ধারণা পাওয়া যায় যে পুলিশ কেন সেখানে অভিযান চালিয়েছে।

বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার ভেতরে তিনটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থান। এগুলো হচ্ছে - নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি, ইন্ডিপেনডেন্টে ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ এবং আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি।

এছাড়া বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার কাছাকাছি ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি এবং ইউআইটিএস নামে আরো দুটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় অবস্থান রয়েছে।

বেসরকারি এসব বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের অনেকেই বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা এবং সংলগ্ন এলাকায় বসবাস করছেন।

নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষার্থী জানালেন, সাম্প্রতিক ছাত্র বিক্ষোভের সময় ঢাকার সায়েন্স ল্যাবরেটরি এলাকার মতো বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার সামনে ছাত্রদের বড় জমায়েত হয়েছিল।

এদের বেশিরভাগই বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর শিক্ষার্থী।

শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, আন্দোলন দমনের জন্য সরকার যেসব কৌশল অবলম্বন করেছে, তারই অংশ হিসেবে বসুন্ধরা এলাকায় 'ব্লক রেইড' করেছে পুলিশ।

যেসব বাসায় পুলিশ তল্লাশি চালিয়েছে সেখানে কেউ 'নাশকতার' সাথে জড়িত ছিল কি-না, সেটি যাচাই করার চেষ্টা করেছে পুলিশ - এমনটাই জানালেন বেসরকারি ইন্ডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটির এক ছাত্র। নাম প্রকাশ না শর্তে ওই ছাত্র বলেন, তল্লাশির সময় ছাত্রদের মোবাইল ফোন এবং ল্যাপটপ দেখতে চেয়েছে পুলিশ।

ওই ছাত্র আরও বলেন, ল্যাপটপ এবং মোবাইলে নিরাপদ সড়ক আন্দোলন সংক্রান্ত কোন ছবি, ভিডিও কিংবা অন্য কোন কিছু আছে কি-না, তা যাচাই করে দেখতে চেয়েছে পুলিশ।

এ সময় অনেক শিক্ষার্থীকে আন্দোলন সম্পর্কিত বিভিন্ন প্রশ্নও করে পুলিশ।

ইন্ডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটির ছাত্র মাহমুদ-উন-নবী বসুন্ধরা এলাকায় বসবাস করেন। তিনি বলেন, বসুন্ধরা এলাকায় যেহেতু অনেক শিক্ষার্থী বসবাস করছে, সেজন্য যেকোন আন্দোলনে দ্রুততম সময়ের মধ্যে অনেক শিক্ষার্থী জড়ো হতে পারে।

সাম্প্রতিক কোটা বিরোধী আন্দোলন, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভ্যাট বিরোধী আন্দোলন এবং নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের সময় ওই এলাকায় শিক্ষার্থীরা জড়ো হয়েছিল।

তবে বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী অভিযান চালাতে পারে, এমন আশংকা সেখানে বসবাসরত শিক্ষার্থীদের অনেকে আগে থেকেই করছিলেন।

মাহমুদ-উন-নবী বলেন, "বেসরকারি এসব বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা রাস্তায় আন্দোলনের সাথে খুব একটা পরিচিত ছিল না। কিন্তু বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার উপর ভ্যাট বিরোধী আন্দোলনের সময় অনেকে রাস্তায় নেমে আসে।"

ফলে এখন অনেক আন্দোলনে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সরব উপস্থিতি দেখা যায় বলে মনে করেন মাহমুদ-উন-নবী।

আর এরই ফলে স্বাভাবিকভাবেই বসুন্ধরা আবাসিক এবং তার আশপাশের এলাকার উপর পুলিশের নজরদারিও বেড়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো নিয়ে সরকারও যে বেশ চিন্তায় রয়েছে, তা শিক্ষামন্ত্রী নূরুল ইসলাম নাহিদের কথায়ও ফুটে উঠেছে।

বুধবার বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর উপাচার্যদের সাথে এক বৈঠকে শিক্ষার্থীদের ক্লাসে উপস্থিত নিশ্চিত করার জন্য তাগাদা দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী।

বসুন্ধরা এলাকায় পুলিশের অভিযান প্রসঙ্গে বেসরকারি নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র শাহবাজ আফ্রিদি বলেন, "আমাদের তো কিছু করার নেই ... সাধারণ ছাত্র-ছাত্রীরা যাতে হয়রানি না হয় ... স্বাভাবিকভাবে, অনেকের মধ্যে ভয় তো আছে।"

তবে পুলিশ বলছে, তাদের অভিযানের সাথে নিরাপদ সড়কের দাবিতে সাম্প্রতিক ছাত্র বিক্ষোভের কোন সম্পর্ক নেই।

ডিএমপি মুখপাত্র মাসুদুর রহমান বিবিসি বাংলাকে জানিয়েছেন, এটি একটি ব্লক রেইড এবং অপরাধী ধরার জন্য এ ধরণের অভিযান তারা প্রায়ই চালিয়ে থাকেন।

বসুন্ধরার অভিযানটিও অপরাধী ধরার জন্যই চালানো হচ্ছে বলে জানান তিনি।

বিবিসি বাংলা

লেখাটি ২৩৮ বার পড়া হয়েছে
নিউজ অর্গান টোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


Share


Related Articles

Comments

ফেসবুক/টুইটার থেকে সরাসরি প্রকাশিত মন্তব্য পাঠকের নিজস্ব ও ব্যক্তিগত মতামতের প্রতিফলন, এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

মোট ভিসিটর সংখ্যা
৭৬৪১৯৬১৯

অনলাইন ভোট

image
মাদক বিরোধী অভিযানের নামে অব্যাহত ক্রসফায়ার সমর্থন করেন কি?

আপনার মতামত
হ্যাঁ
না
ভোট দিয়েছেন ৯৪ জন

আজকের উক্তি

নির্বাচনকালীন সরকার কিংবা সহায়ক সরকার বিষয়টি রাজনৈতিক, এ বিষয়ে আমার কোনো বক্তব্য নেই: প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নুরুল হুদা
Changer.com - Instant Exchanger