রাজনীতি

‘দুয়ারে দুয়ারে সামাদ পুত্র ডন’

image
Mon, September 10
10:13 2018

শাহীন তালুকদার:

জগন্নাথপুর- দক্ষিণ সুনামগঞ্জ নিয়ে গঠিত সুনামগঞ্জ – ৩ আসনে ৫৪ সালে প্রথম এবং ২০০১ সালে নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করে আমৃত্য এমপি ছিলেন স্বাধীন বাংলার প্রথম পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রয়াত জাতীয় নেতা মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ভাষা সৈনিক জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ঠ সহচর আলহাজ্ব আব্দুস সামাদ আজাদ। কিন্তু সামাদ আজাদের সমসাময়িক ও পরবর্তী পর্যায়ের জাতীয় ও কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের রক্তের উত্তরাধিকার সবাই সরকারে, সংসদে ও কেন্দ্রীয় কমিটিতে জায়গা করে নিলে ও এর একমাত্র ব্যতিক্রম সামাদ আজাদের পরিবার।

সামাদ আজাদ ১৪ বছর আগে মৃত্যুবরণ করলে ও আজ পর্যন্ত সামাদ পুত্র ডনকে কোথাও স্থান দেওয়া হয়নি। বার বার শুধু আশ্বাস আর প্রতিশ্রুতির বানী শোনানো হয়েছে। কিন্তু দমে যাননি সামাদ পুত্র ডন। হাটি হাটি পা পা করে নিজস্ব মহিমায় জনগণের মণিকোঠায় স্থান করে নিয়েছেন। বিগত ১৫ বছরে যোগ্যতা, দক্ষতা ও অভিজ্ঞতার প্রমাণ দিয়েছেন বার বার। অর্জন করেছেন বিপুল জনপ্রিয়তা ও জনগণের নিখাদ ভালবাসা।

এবার সকল সকল জল্পনা, কল্পনা ও প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে পিতার আসনে দুয়ারে দুয়ারে যাচ্ছেন সামাদ পুত্র ডন। জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের বার্তা নিয়ে নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করার লক্ষ্যে গত ৫ সেপ্টেম্বর আনুষ্ঠানিক নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেছেন তিনি। জগন্নাথপুর উপজেলার প্রবেশদ্বার মিরপুর ইউনিয়নের মিরপুর বাজার থেকে প্রথম গণসংযোগ শুরু করেন। বিকালে চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়নের চিলাউড়া বাজারে গণসংযোগ করেন। সন্ধ্যায় জগন্নাথপুর উপজেলা সদরে আওয়ামী লীগ, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় সভায় মিলিত হন। রাতে পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডে মতবিনিময় ও গণসংযোগ করেন। ৬ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার উপজেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে জগন্নাথপুর বাজারে ঈদ পূনর্মিলনী সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ডন।

স্বরণকালের ঐতিহাসিক জনসমুদ্রে দাড়িয়ে ডন বলেন, আমি আপনাদের সন্তান। আমার বাবার ইজ্জতের দিকে থাকিয়ে অন্তত একটি বারের জন্য আমাকে নৌকা মার্কায় ভোট দিন। স্বপ্নের কথা শোনালেন, স্বপ্ন দেখালেন, স্বপ্ন পূরণে জনগণকে পাশে থাকার আহবান জানালেন। স্বপ্ন পূরণের সন্ধিক্ষণে দাড়িয়ে আছেন। এটাও উপস্থিত জনতাকে জানালেন। এ যেন হ্যামিলিয়নের বাঁশি ওয়ালা বাঁশি বাজাচ্ছেন। আর উপস্থিত দর্শক জনতা মুগ্ধ হয়ে শুনে যাচ্ছেন। আর মাথা নেড়ে সমর্থন ও সম্মতি জানাচ্ছেন। হাজার হাজার জনতার উপস্থিতিতে ঈদ পূনর্মিলনী সভাটি বিরাট জনসভায় রূপ নেয়।

জগন্নাথপুর উপজেলা ও দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে খণ্ড খণ্ড মিছিল নিয়ে তৃণমূল আওয়ামীলীগের নেতা কর্মীরা জনসভাস্থলে সমবেত হন। অনুষ্ঠান শুরুর পূর্বে পৌর শহরে এক বিরাট মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলটি পৌর শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে অনুষ্ঠানে এসে শেষ হয়। মিছিলে এবার নৌকা মার্কায় ডন মুহর্মুহ স্লোগানে প্রকম্পিত হয়ে উঠে পুরো উপজেলা সদর।

গত ৭ সেপ্টেম্বর শুক্রবার দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার পূর্বপাগলা ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে সারাদিন সামাদ পুত্র ডন গণসংযোগ করেন। ৮ সেপ্টেম্বর শনিবার জগন্নাথপুর উপজেলার আশারকান্দি ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডে দিনভর গণসংযোগ করেন। ডন ভোটারদের বাড়ী বাড়ী যাচ্ছেন।দরজায় কড়া নাড়ছেন। জননেত্রী শেখ হাসিনার সালাম পৌঁছে দিচ্ছেন। নৌকা মার্কায় ভোট প্রার্থনা করছেন। আগামী নির্বাচনে দোয়া ও সহযোগিতার আহবান জানাচ্ছেন। ভোটারদের অভূতপূর্ব সাড়া পাচ্ছেন। প্রিয় নেতাকে কাছে পেয়ে আবাল বৃদ্ধ ভণিতা সর্বস্তরের জনগণ তাকে স্বাগত জানাচ্ছেন। বৃদ্ধরা মাথায় হাত বুলিয়ে দিচ্ছেন। যুবক ও মধ্যবয়সীরা বুক মিলিয়ে তাদের ভালবাসার জানান দিচ্ছেন। পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন। এক কথায় বলা যায় ডনের পক্ষে গণজাগরণ ও গন-জোয়ার সৃষ্টি হয়েছে । যেখানেই ডন, সেখানেই জনতার ঢল।

লেখক ও রাজনীতিবিদ।

লেখাটি ১২৭৮ বার পড়া হয়েছে
নিউজ অর্গান টোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


Share


Related Articles

Comments

ফেসবুক/টুইটার থেকে সরাসরি প্রকাশিত মন্তব্য পাঠকের নিজস্ব ও ব্যক্তিগত মতামতের প্রতিফলন, এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

মোট ভিসিটর সংখ্যা
৭৯১৮০০৪৪

অনলাইন ভোট

image
মাদক বিরোধী অভিযানের নামে অব্যাহত ক্রসফায়ার সমর্থন করেন কি?

আপনার মতামত
হ্যাঁ
না
ভোট দিয়েছেন ১১৭ জন

আজকের উক্তি

নির্বাচনকালীন সরকার কিংবা সহায়ক সরকার বিষয়টি রাজনৈতিক, এ বিষয়ে আমার কোনো বক্তব্য নেই: প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নুরুল হুদা
Changer.com - Instant Exchanger