রাজনীতি

রাজশাহী বিভাগের যে সব আসনে প্রার্থী চূড়ান্ত করেছে বিএনপি

image
Thu, September 13
10:13 2018

ইখতিয়ার উদ্দীন আজাদ:

একাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবে কিনা- সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত না নিলেও ১১৫ আসনে প্রার্থী চূড়ান্ত করেছে বিএনপি। একাধিক জরিপে এসব আসনে বড় ধরনের কোনো ঝামেলার তথ্য পায়নি দলটি।

দেশব্যপী চালানো জরিপ এবং পঞ্চম, অষ্টম ও নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ফল বিশ্লেষণ করে আসনগুলোতে একক প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়েছে। আন্দোলনকেই প্রধান টার্গেট করে এসব প্রার্থীর পরিকল্পনা অনুযায়ী ওই সংসদীয় আসনে সংগঠন গোছানো হচ্ছে। লন্ডন ও গুলশান কার্যালয় সূত্র এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এ নিয়ে বিএনপি নীতিনির্ধারণী পর্যায়ের কোনো নেতা নাম প্রকাশ করে কথা বলতে রাজি হয়নি। তবে নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক নীতিনির্ধারক বলেন, যেসব আসনে বড় ধরনের কোনো ঝামেলা নেই সেখানে একক প্রার্থীর একটি তালিকা করা হয়েছে। সেই তালিকা অনুযায়ী প্রার্থীর কাছে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান টেলিফোন করে বার্তা দিচ্ছেন।

ওই নীতিনির্ধারক আরও জানান, যেসব আসনে কমপক্ষে ৩ থেকে সর্বোচ্চ ৭ জন প্রার্থী আছেন সেখানে ঝামেলা হচ্ছে। লন্ডনে পলাতক দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশনায় দায়িত্বশীল নেতারা এগুলো নিয়ে কাজ করছেন। তবে ২০ দলীয় জোটের শরিক ও ঐক্য প্রক্রিয়ায় যুক্ত দলগুলোর সম্ভাব্য প্রার্থীদের আসনে বিএনপি নিজ দলের কাউকে মনোনয়ন দেবে না বলেও জানান তিনি।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, নির্বাচন ঘিরে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান একাধিক জরিপ চালিয়েছেন। জরিপে এগিয়ে থাকা প্রার্থী, বিগত তিনটি জাতীয় নির্বাচনের ফল এবং প্রার্থীর রাজনৈতিক অবস্থা বিবেচনা করে সবুজ সংকেতও দেয়া হচ্ছে।

মনোনয়নের নিশ্চয়তা পাওয়া প্রার্থীদের পরিকল্পনামতো সংশ্লিষ্ট সংসদীয় আসনের সংগঠন গোছানো হচ্ছে। তাদের কঠোর আন্দোলনের প্রস্তুতির বার্তা দেয়া হচ্ছে। পাশাপাশি নির্বাচনের প্রস্তুতিও নিতে বলা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু বলেন, চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকারের দাবি আদায়ে আন্দোলনের কোনো বিকল্প নেই। এবার বেশিদিন নয়, স্বল্প সময়ের আন্দোলনেই দাবি আদায় করা হবে। পাশাপাশি নির্বাচনের জন্যও প্রস্তুতি রয়েছে।

৩০০ আসনে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের অবস্থা ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের কাছে আছে। তিনি জরিপ চালিয়েছেন। যেখানে প্রার্থী প্রায় নিশ্চিত, বড় কোনো ঝামেলাও নেই সেখানে একজনকে আন্দোলন ও নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি নিতে বলা হচ্ছে। তিনি সরাসরি ফোন করে এ নিয়ে কথা বলছেন। সূত্র জানায়, বিএনপি চেয়ারপারসন কারাগারে যাওয়ার আগে জানুয়ারিতে গুলশান কার্যালয়ে অনানুষ্ঠানিক এক বৈঠকে নির্বাচনে প্রার্থী নিয়ে আলোচনা করেন স্থায়ী কমিটির সদস্যরা।

এক পর্যায়ে সিনিয়র দু’জন স্থায়ী কমিটির সদস্য বলেন, ম্যাডাম নির্বাচনে যাই বা না যাই প্রার্থী তো চূড়ান্ত করতে হবে। এ সময় বিএনপি চেয়ারপারসন তাদের বলেন, বিএনপির কমপক্ষে দেড়শ’ আসন তো এমনিতেই ঠিক আছে।

আলোচনা চলাকালীন সময় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার একটি আসনের প্রয়াত এক সংসদ সদস্যের ছেলে দেখা করতে চাইলে বিএনপি চেয়ারপারসন তাকে দেখা করার অনুমতি দেন।

পরে প্রয়াত ওই নেতার ছেলেকে দেখিয়ে খালেদা জিয়া স্থায়ী কমিটির সদস্যদের বলেন, এই যে বিএনপির একজন প্রার্থী। পরে সাবেক ওই সংসদ সদস্যের ছেলেকে তার নির্বাচনী এলাকায় কাজ শুরু করতে বলেন চেয়ারপারসন।

রাজশাহী বিভাগের চূড়ান্ত হওয়া তালিকায় থাকা আসন গুলো হচ্ছে:

ফয়সাল আলিম (জয়পুরহাট-১), প্রকৌশলী গোলাম মোস্তফা (জয়পুরহাট-২), হারুনুর রশিদ (চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩), নাসরিন আক্তার সিদ্দিকী (নওগাঁ-৩), ব্যারিস্টার আমিনুল হক (রাজশাহী-১), মিজানুর রহমান মিনু (রাজশাহী-২), কামরুন্নাহার শিরিন (নাটোর-১), অ্যাডভোকেট রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু (নাটোর-২), ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু (সিরাজগঞ্জ-২), আবদুল মান্নান তালুকদার (সিরাজগঞ্জ-৩) ও হাবিবুর রহমান হাবিব (পাবনা-৪)।

লেখাটি ৫৭১ বার পড়া হয়েছে
নিউজ অর্গান টোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


Share


Related Articles

Comments

ফেসবুক/টুইটার থেকে সরাসরি প্রকাশিত মন্তব্য পাঠকের নিজস্ব ও ব্যক্তিগত মতামতের প্রতিফলন, এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

মোট ভিসিটর সংখ্যা
৭৭৮২৪০১৪

অনলাইন ভোট

image
মাদক বিরোধী অভিযানের নামে অব্যাহত ক্রসফায়ার সমর্থন করেন কি?

আপনার মতামত
হ্যাঁ
না
ভোট দিয়েছেন ১০৫ জন

আজকের উক্তি

নির্বাচনকালীন সরকার কিংবা সহায়ক সরকার বিষয়টি রাজনৈতিক, এ বিষয়ে আমার কোনো বক্তব্য নেই: প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নুরুল হুদা
Changer.com - Instant Exchanger