পাকিস্তান দলে চমক হায়দার

ইংল্যান্ড সফরের জন্য ২৯ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। সে দলে জায়গা হয়েছে ১৯ বছর বয়সী হায়দার আলীর। গত ফেব্রুয়ারিতেই তিনি খেলেছেন অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে। ছয় মাস না যেতেই স্বপ্নের ঠিকানায় এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। কোচ ও প্রধান নির্বাচক মিসবাহ-উল-হক জানিয়েছেন, হায়দারকে জাতীয় দলে নেয়া হয়েছে ভবিষ্যৎ চিন্তায়। অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে ব্যাট হাতে আলো ছড়াতে পারেননি হায়দার। একটি মাত্র ফিফটি ভারতের বিপক্ষে। তবে নিজের জাত চিনিয়েছেন পাকিস্তান সুপার লীগে। পেশোয়ার জালমির হয়ে ৯ ম্যাচে ২৩৯ রান করেন ১৫৮.২৭ স্ট্রাইক রেটে।

সিরিজের সূচি চূড়ান্ত না হলেও পিসিবির দল ঘোষণায় অনেকটাই নিশ্চিত পাকিস্তানের ইংল্যান্ড সফর। আগামী জুলাই-আগস্টে তিনটি করে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি খেলার কথা রয়েছে পাকিস্তানের। ইংল্যান্ডে গিয়ে দুই সপ্তাহের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। সিরিজ শুরুর পাঁচ সপ্তাহ আগে ইংল্যান্ডে পা রাখবে পাকিস্তান। প্রস্তুতি ম্যাচও খেলতে হবে নিজেদের মধ্যেই। সেজন্যই ২৯ সদস্যের স্কোয়াড দিয়েছে পিসিবি। চারজনের একটি রিজার্ভ তালিকাও রাখা হয়েছে। আগামী ২০ ও ২৫শে জুন কোভিড-১৯ পরীক্ষা করা হবে সবার। স্কোয়াডের কেউ করোনা পজিটিভ হলে তার বদলি নেয়া হবে রিজার্ভ তালিকা থেকে।

ইংল্যান্ড সফর থেকে আগেই নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন মোহাম্মদ আমির ও হারিস সোহেল। আগস্টে দ্বিতীয় সন্তানের বাবা হতে চলেছেন আমির। আর হারিস সোহেল ব্যাক্তিগত কারণ দেখিয়ে নিজেকে সরিয়ে নেন ইংল্যান্ড সফর থেকে। ২৯ সদস্যের দলে ইনজুরির কারণে নেই পেসার হাসান আলী। হায়দার ছাড়া স্কোয়াডের আরো একজনের নেই আন্তর্জাতিক ম্যাচের অভিজ্ঞতা, কাশিফ ভাট্টি। ৩৩ বছর বয়সী এই স্পিনিং অলরাউন্ডার এর আগে অস্ট্রেলিয়া ও শ্রীলঙ্কা সিরিজের দলের থাকলেও মাঠে নামা হয়নি। দলে ফিরেছেন তিন বছর আগে সবশেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলা ৩৬ বছর বয়সী পেসার সোহেল খান।

পাকিস্তানের আগে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজে মাঠে নামবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। আগামী ৮ই জুলাই শুরু দু’দলের প্রথম টেস্ট।

পাকিস্তান দল;
আজহার আলী (টেস্ট অধিনায়ক), বাবর আজম (টেস্ট সহ-অধিনায়ক, টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক), আবিদ আলী, ফখর জামান, ইমাম-উল-হক, শান মাসুদ, আসাদ শফিক, ফাওয়াদ আলম, হায়দার আলি, ইফতিখার আহমেদ, খুশদিল শাহ, মোহাম্মদ হাফিজ, শোয়েব মালিক, সরফরাজ আহমেদ, মোহাম্মদ রিজওয়ান, ফাহিম আশরাফ, হারিস রউফ, ইমরান খান, মোহাম্মদ আব্বাস, মোহাম্মদ হাসনাইন, নাসিম শাহ, শাহিন শাহ আফ্রিদি, সোহেল খান, উসমান খান শিনওয়ারি, ওয়াহাব রিয়াজ, ইমাদ ওয়াসিম, কাশিফ ভাট্টি, শাদাব খান ও ইয়াসির শাহ।
রিজার্ভ : বিলাল আসিফ, মোহাম্মদ নওয়াজ, ইমরান বাট ও মুসা খান।

Add your comment:

Related posts