রোনালদোর পেনাল্টি মিসেও ফাইনালে

৯৬ দিন পর ইতালিতে ফিরল ফুটবল। কোপা ইতালিয়ার সেমিফাইনাল ফিরতি লেগে এসি মিলানের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করে ফাইনালে নাম লিখিয়েছে জুভেন্টাস। ঘটনাবহুল ম্যাচে পেনাল্টি মিস করেছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। ১৭তম মিনিটে স্ট্রাইকার আনতে রেবিচ লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়লে দশ জনের দলে পরিণত হয় মিলান। তবুও প্রতিপক্ষের গোলমুখ খুলতে ব্যর্থ রোনালদো-দিবালারা।

শুক্রবার রাতে তুরিনের আলিয়াঞ্জ স্টেডিয়ামে ‘খলনায়ক’ হতে গিয়ে বেঁচে গিয়েছেন রোনালদো। প্রথম লেগে মিলানের মাঠ থেকে ১-১ গোলে ড্র করে ফিরেছিল আসরের ১৩বারের চ্যাম্পিয়ন জুভেন্টাস। সে ম্যাচে পেনাল্টি থেকে গোল করেছিলেন রোনালদো। পর্তুগিজ তারকার ওই গোলটির কারণেই রেকর্ড ১৯তম বারের মতো কোপা ইতালিয়ার ফাইনালে জুভেন্টাস।

ম্যাচের ১৬তম মিনিটে মিলান ডিফেন্ডার আন্দ্রেয়া কন্তি’র হাতে বল লাগায় ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারির সহায়তায় পেনাল্টি পায় জুভেন্টাস।

তিনমাস মাঠের বাইরে কাটিয়ে পায়ে হয়তো কিছুটা ধার হারিয়েছেন পর্তুগিজ তারকা। স্পটকিক মারলেন গোলপোস্টে। ফিরতি বলের দখল নিতে গিয়ে আনতে রেবিচের পা লাগলো জুভেন্টাসের ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার দানিলোর মুখে। ২০১০ বিশ্বকাপের ফাইনালে স্প্যানিশ মিডফিল্ডার জাভি আলোনসোর বুকে একইভাবে কুংফু স্টাইলে পা চালিয়েছিলেন ডাচ তারকা নাইজেল ডি ইয়ং। সেদিন রেফারির চোখ এড়িয়ে গেলে বেঁচে যান ডি ইয়ং। তবে ক্রোয়েশিয়ান স্ট্রাইকার রেবিচের ভাগ্যটা ডি ইয়ংয়ের মতো সুপ্রসন্ন ছিল না। লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন তিনি।

আজ রাতে দ্বিতীয় সেমিফাইনালে নাপোলির মুখোমুখি হবে ইন্টার মিলান। প্রথম দেখায় নাপোলির কাছে ১-০তে হারে ইন্টার। এ ম্যাচের জয়ী দলের সঙ্গে ১৭ই জুন শিরোপা লড়াইয়ে নামবে জুভেন্টাস।

Add your comment:

Related posts