ইউরোপীয় তরুণ নেতৃবৃন্দের ভার্চ্যুয়াল ঈদ শুভেচ্ছা ও মত বিনিময়

আলম হোসেন, বেলজিয়াম থেকে;

১৪ জুন রবিবার সন্ধ্যায় অস্ট্রিয়ার বিএনপির অন্যতম নেতা ও অস্ট্রিয়া বিএনপির সাবেক সিনিয়র সহ সাধারণ সম্পাদক জনাব মাসুদুর রহমান মাসুদের ব্যক্তিগত উদ্যোগে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের বিএনপির তরুণ নেতৃবৃন্দের এক অনলাইন ঈদের শুভেচ্ছা ও মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এই অনুষ্ঠানটি সঞ্চালন করেন মাসুদুর রহমান মাসুদ। এই আকর্ষণীয় অন লাইন সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে যোগ দেন ঢাকা থেকে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির তথ্য বিষয়ক সম্পাদক ও সাবেক সফল ছাত্রদল সভাপতি জনাব আজিজুল বারী হেলাল।

বিশেষ অতিথি ছিলেন যুবদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ও বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য জনাব মামুন হাসান। আরও ছিলেন পর্তুগাল বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা আহবায়ক এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্রদল নেতা জনাব মাজহারুল ইসলাম মোমেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জনাব আজিজুল বারী হেলাল সকলকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়ে তার সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বাংলাদেশে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের অবদানের কথা শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন। বর্তমানে করোনা পরিস্থিতির অবনতির জন্য সরকারের পূর্ব প্রস্তুতির ব্যর্থতার সমালোচনা করেন। তিনি উল্লেখ করেন বিএনপি নেতৃবৃন্দ চীন এবং ইতালিতে করোনা মহামারী ব্যাপক আকারে ছড়িয়ে পড়লে সরকারকে জরুরী অবস্থা ঘোষণা করে লক ডাউনের অনুরোধ করেছিলেন কিন্তু সরকার তা করেন নি। তিনি আরও জানান মহামারী করোনায় তারেক রহমানের নির্দেশে বাংলাদেশে বিএনপি করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত প্রায় ৩১ লক্ষ পরিবারের মধ্যে এবং প্রায় ১ কোটি ১০ লক্ষ মানুষকে ত্রাণ,আর্থিক সহায়তা এবং পুনর্বাসনে সাহায্য করেছেন।

ঢাকা থেকে যুবদল নেতা জনাব মামুন হাসান বলেন, বিএনপির তরুণ নেতৃবৃন্দ করোনার মহামারীর পাশাপাশি সরকারের জুলুম ও অমানবিক নির্যাতনেরও
শিকার হচ্ছেন। তিনি সকল প্রবাসী নেতৃবৃন্দকে দেশে অসহায় মানুষকে বিভিন্ন উপায়ে আর্থিক ও দোয়ার মাধ্যমে সহযোগিতা করার জন্য ধন্যবাদ জানান।

সাবেক ছাত্র নেতা মাজহারুল ইসলাম মোমেন ইউরোপীয় তরুণ নেতৃবৃন্দকে পারস্পরিক ভেদাভেদ ভুলে একসাথে আরও সক্রিয় হয়ে কাজ করার আহবান জানিয়েছেন।

অনুষ্ঠানে ইউরোপীয় নেতৃবৃন্দের মধ্যে অস্ট্রিয়া থেকে অংশগ্রহণ করেন জনাব আক্তারুজ্জামান শিকদার শিবলী,আবুল কাশেম রাসেল,খোকন খান এবং অস্ট্রিয়ার উদীয়মান সাংবাদিক কবীর আহমেদ।

অন্যান্য ইউরোপীয় নেতৃবৃন্দের মধ্যে জার্মান বিএনপির
১নং যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মোস্তাক খান এবং ফ্রাঙ্কফুর্ট থেকে বিএনপি নেতা সেলিম বেপারী চঞ্চল

ফ্রান্স থেকে ছিলেন সাবেক সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম ও সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক জুনায়েদ আহমেদ।

সুইজারল্যান্ডের জেনেভা থেকে বিএনপির অন্যতম নেতা মাহবুবুর রহমান ও জুরিখ থেকে বিএনপি নেতা মাহাবুবুর রহমান অসীম

ইতালি থেকে ইতালি বিএনপির ১ম যুগ্ন সম্পাদক ও সাবেক কেন্দ্রীয় যুবদল নেতা জনাব শাহ্ তৌহিদ এবং মান্নান হীরা।

বেলজিয়াম থেকে ছিলেন সিনিয়র যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক জনাব আলম হোসেন ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশীদ হারুন।

ফিনল্যান্ড থেকে ছিলেন বিএনপির দপ্তর সম্পাদক জনাব শামীম মোহাম্মদ এবং বিএনপি নেতা জনাব শামসুল গাজী।

স্পেন থেকে ছিলেন সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এবং ছাত্রদল অরগানাইজেশন ইউরোপের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি
জনাব আবু জাফর রাসেল।

যুক্তরাজ্য (ব্রিটেন) থেকে ছিলেন যুক্তরাজ্য বিএনপির সাংস্কৃতিক সম্পাদক জনাব হাবিবুর রহমান হাবিব এবং যুক্তরাজ্য স্বেচ্ছাসেবকদলের সাধারণ সম্পাদক জনাব আবুল হোসেন।

সুইডেন থেকে ছিলেন বিএনপি নেতা গাজি সাইফুল ইসলাম মিথুন এবং ডেনমার্ক থেকে ছিলেন বিএনপি নেতা সোহেল আহমেদ।

নেতৃবৃন্দ ঈদের শুভেচ্ছা ছাড়াও বাংলাদেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়েও বিস্তারিত আলোচনা করেছেন। তাছাড়া সকলেই শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের রাজনৈতিক আদর্শের প্রতি আনুগত্য প্রকাশ করে তারেক রহমানের নেতৃত্বে সকল প্রকার ভেদাভেদ ভুলে ইউরোপে জাতীয়তাবাদী দলকে এক প্লাটফর্মে আনার উপর গুরুত্ব আরোপ করেছেন। সকলেই তিন বারের নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী দলের চেয়ারপারসন ও আপোসহীন দেশমাতা বেগম খালেদা জিয়ার দীর্ঘ জীবন ও সুস্বাস্থ্য কামনা করেছেন।
Attachments area

Add your comment:

Related posts